বর্তমানে অনেক অনলাইন তবে কমেছে অনুসন্ধানী রিপোর্ট-তথ্যমন্ত্রী

চট্টগ্রাম মেইল : তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, বর্তমানে অনেক অনলাইন পোর্টাল হয়ে গেছে। তবে অনুসন্ধানী রিপোর্ট অনেক ক্ষেত্রে আগের চেয়ে কমে গেছে। তিনি বলেন, যত্রতত্র অনলাইন খুলে সাংবাদিক কার্ড হাতে ধরিয়ে দিয়ে নানা অপকর্মে লিপ্ত থেকে পেশাকে অমর্যাদা করছে। এসব অনলাইনগুলোকে শৃঙ্খলায় আনতে হবে। এটি ঠিক না করলে পেশার মর্যাদা ধরে রাখা যাবে না। এক্ষেত্রে সাংবাদিক ইউনিয়ন ও প্রেস ক্লাবগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে।

শনিবার (১৮ মে) সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে ‘সাংবাদিকতার নীতিমালা, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন ও তথ্য অধিকার আইন অবহিতকরণ’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে গণমাধ্যমের ভূমিকা অনেক বেশি। দেশের স্বাধীকার, স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের আন্দোলনে চট্টগ্রামের সাংবাদিকদের ভূমিকা রয়েছে। গণমাধ্যম রাষ্ট্র গঠন, নতুন প্রজন্মের মনন বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

বস্তুগত উন্নয়নের মাধ্যমে অবকাঠামো করা যায়, কিন্তু উন্নত জাতি গঠন সম্ভব নয়। সেজন্য মানুষের নৈতিকতা ও দেশাত্মবোধের উন্নয়ন প্রয়োজন। এটি না হলে বস্তুগতভাবে রাষ্ট্র এগিয়ে গেলেও সম্মিলিত উন্নয়ন হবে না। স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে সাংবাদিকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের জন্য এ কর্মশালা আয়োজন করে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেস কাউন্সিলের সদস্য ও বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম।

প্রেস কাউন্সিলের সচিব মো. শাহ আলমের সঞ্চালনায় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ।

কর্মশালায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সংবাদকর্মীরা অংশ নেন।

বিএম/রাজীব সেন প্রিন্স..