হালদায় অভিযান : ৫ হাজার মিটার জাল জব্দের পর পুড়িয়ে ধ্বংস

রাউজান প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের এক মাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে জালপাতা ও চলাচলকারী যান্ত্রিক নৌযান এর বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করা হয়েছে। শনিবার জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মুমিনুল হকের নেতৃত্বে একটি অভিযানিক দল নদীর কয়েক কিলোমিটার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময় নদীর বিভিন্ন স্পট থেকে পাঁচ হাজার মিটার জাল জব্দ করা হয়।

এছাড়াও অভিযানের সময় নদীতে চলাচলকারী কয়েকটি নৌযানের ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ খুলে নিয়ে পরবর্তী সময়ে নদীতে আর না নামার জন্য সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হয়। অভিযানে জেলা মৎস্যকর্তার সাথে ছিলেন মৎস্য কর্মকর্তা আজহারুল আলম, আইডিএফর এর প্রেগ্রাম অর্গানাইজার সাদ্দাম হোসেন, সেচ্ছাসেবক কামাল উদ্দিন সওদাগর ও রোশাঙ্গীর আলম।

হাটহাজারী উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আজহারুল আলম বলেছেন শনিবার এই অভিযানে তাদের সহায়তা দিয়েছেন হালদায় কাজ করা বেসরকারি সংস্থা আইডিএফ এর কর্মকর্তা ও সেচ্ছাসেবকগণ। তাদের স্পীডবোর্ড ব্যবহার করে এই অভিযান চালানো হয়েছে।

আইডিএফ এর কর্মকর্তা সাদ্দাম হোসেন জানিয়েছেন অভিযানটি চলে হালদা নদী পাড়ের নয়াহাট থেকে কালুঘাট পর্যন্ত। এই এলাকায় যেখানে জাল পাওয়া গেছে সেখান থেকে জাল জব্দ করে মদুনাঘাটে এনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

হালদাপাড়ের মৎস্যজীবি কামাল সওদাগর জানায় আগের দিন ১৭ মে শুক্রবার হাটহাজারী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সম্রাট খিসার নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে সর্তারঘাটের দুটি বালুবাহী যান্ত্রিক নৌকায় আগুন দেয়া হয়েছে। এর আগে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিনের নেতৃত্বে কয়েক হাজার জাল জব্দ করে পোড়ানো হয়।

বিএম/হামজা/রাজীব..