সাকিবের নতুন রেকর্ড
ওয়াহ-জয়াসুরিয়ার পাশে বসলেন সাকিব

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে এবার চতুর্থবারের মতো খেলছেন সাকিব আল হাসান। শনিবার (৮ জুন) ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে মাত্র তৃতীয় অলরাউন্ডার হিসেবে বিশ্বকাপ মঞ্চে আরেক কীর্তি গড়েছেন এই বাঁহাতি ক্রিকেটার।

২০০৭ সালে ক্যারিবিয়ান দ্বীপে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো খেলেছিলেন সাকিব। তারপর ২০১১ বিশ্বকাপে খেলেন অধিনায়ক হিসেবে। ২০১৫ ও ২০১৯ বিশ্বকাপে সহ-অধিনায়ক হিসেবে খেলছেন তিনি।

২০১৫ বিশ্বকাপ শেষেই ব্যাট ও বল দুই বিভাগেই দলের সেরা খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। সেই কীর্তি ধরে রেখেছেন এখনো। সেই সাথে ব্যক্তিগত অর্জনে অলরাউন্ডারদের এক এলিট ক্লাবেও প্রবেশ করলেন তিনি।

মাত্র তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপ ইতিহাসে ৭ শতাধিক রান ও ২৫ বা তার অধিক উইকেট শিকারির তালিকায় তুলেছেন নিজের নাম। বর্তমানে বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের আগে উক্ত তালিকায় নাম উঠান শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার সনাৎ জয়াসুরিয়া ও অজি ক্রিকেটার স্টিভ ওয়াহ।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চলমান ম্যাচটি বিশ্বকাপের সাকিবের ২৪তম ম্যাচ। প্রথম ২৩ ম্যাচে তিনি সংগ্রহ করেছিলেন ৬৭৭ রান। শিকার করেছিলেন ২৬ উইকেট। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোনো উইকেট পাননি তিনি। তবে ২৩ রান করার মাধ্যমেই জয়াসুরিয়া, ওয়াহদের পাশে নিজের নাম লেখান সাকিব।

চলতি বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচেই অর্ধশতক তুলে নিয়েছিলেন এই বাঁহাতি ক্রিকেটার। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১ম ম্যাচে ব্যাট হাতে ৭৫ রান ও বল হাতে ১ উইকেট নিয়ে হয়েছিলেন ম্যাচসেরা। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচেও ছিলেন দলের সেরা পারফর্মার। ব্যাট হাতে করেছিলেন ৬২ রান ও বল হাতে শিকার করেছিলেন ২ উইকেট।

বিএম/এমআর