পদক নিলেন রুহুল আমিনসহ আরো ৪ জন
চট্টগ্রামের ডিসির হাতে জনপ্রশাসন পদক তুলে দিলেন রাষ্ট্রপতি

চট্টগ্রাম মেইল : পরিবেশ ও আর্থ সামাজিক উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. ইলিয়াস হোসেনের হাতে ২০১৯ সালের জনপ্রশাসন পদক দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) পাবলিক সার্ভিস দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের হাতে পদকটি তুলে দেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ।

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার অবকাঠামোগত উন্নয়ন, সংস্কার, সাধারণ ও অবহেলিত দু:স্থ শিক্ষার্থীদের জন্য প্রাণি বিষয়ক সচেতনতামূলক শিক্ষা কার্যক্রম, নতুন নতুন প্রাণি সংযোজন, সংরক্ষণ ও পর্যটন সুবিধা বৃদ্ধির মাধ্যমে পরিবেশ ও আর্থসামাজিক উন্নয়নের জন্য চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তিনি এ পদক গ্রহণ করেন।

সাধারণ ক্ষেত্রে দলগত শ্রেণিতে পাওয়া এ পদকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অন্য সদস্যরা হলেন- চট্টগ্রামের সাবেক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মমিনুর রশিদ, হাটহাজারীর ইউএনও ও চিড়িয়াখানা ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব মো. রুহুল আমিন, কাট্টলী সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. তৌহিদুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর শাহাদাত হোসেন শুভ।

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা ২০১৪ সালের পর থেকে আলোর মুখ দেখা শুরু করে। ওই বছরের জুনে চিড়িয়াখানা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব পদে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের তৎকালীন সহকারী কমিশনার মো. রুহুল আমিন যোগদানের পর লোকসানের মুখে থাকা এ প্রতিষ্ঠান ঘুরে দাঁড়ায়।

মাত্র ৫ বছরে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার নিজস্ব আর্থায়নে প্রায় ৬ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হয়। কয়েকশ প্রজাতির দেশি-বিদেশি পাখি নিয়ে তৈরি অ্যাভিয়ারি পার্ক, আফ্রিকা থেকে আমদানি করা রয়েল বেঙ্গল টাইগার-জ্রেব্রা, উট পাখি, ইমু পাখিসহ নানান প্রজাতির পশুপাখিতে মুখরিত চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা দেখতে প্রতিদিন ভিড় করেন নানা শ্রেণি পেশার মানুষ।

প্রতিবছর ২৩ জুলাই জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস উদযাপন করা হয়। এ বছর জাতীয় পর্যায়ে ১জন ব্যক্তি, জেলা পর্যায়ে ৩৪ জন ব্যক্তি এবং উভয়পর্যায়ে একটি করে মোট দুটি প্রতিষ্ঠান জনপ্রশাসন পদকের জন্য মনোনীত হয় ।

বিসিএস ২০তম ব্যাচের কর্মকর্তা মো. ইলিয়াস হোসেনকে ২০১৮ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক হিসেবে পদায়ন করে সরকার। পরবর্তীতে মার্চের ৫ তারিখ চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন তিনি।

বিএম/আরএস..