১টি সিলগালা,৬টিকে জরিমানা
ফার্মেসীতে মিললো ফিজিশিয়ান স্যম্পল, ফুড সাপ্লিমেন্ট ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ

আনোয়ারা প্রতিনিধি : জেলার আনোয়ারা উপজেলার চাতরী চৌমুহনী এলাকার বিভিন্ন ফার্মেসীতে হানা দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

আনোয়ারা উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইদুজ্জামান চৌধুরীর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে উপস্থিত ছিলেন ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের তত্ত্বাবধায়ক হোসাইন মোহাম্মদ ইমরান।

আজ ২৪ জুলাই বুধবার বিকেল থেকে পরিচালিত এ ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে বিভিন্ন ফার্মেসীতে মিললো বিক্রি নিষিদ্ধ অবৈধ ঔষধ, আনরেজিস্টার্ড ফিজিশিয়ান স্যম্পল, ফুড সাপ্লিমেন্ট, ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ।

এছাড়াও তাপ সংবেদনশীল ঔষধ যথাযথ সংরক্ষন না করায় ও ফার্মাসিস্ট না থাকাসহ আরো একাধিক অভিযোগে মোট ৬টি ফার্মেসীকে মোট ৭১ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত।

পাশাপাশি ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় ১ টি ফার্মেসী বন্ধ করে দেওয়া হয়।

তত্ত্বাবধায়ক হোসাইন মোহাম্মদ ইমরান বলেন, আসন্ন কোরবানকে ঘিরে আনোয়ারা থানা এলাকার কিছু প্রতিষ্ঠানে গরু মোটা তাজাকরণ ওষুধ বিক্রি হচ্ছে তথ্য পেয়ে বুধবার বিকেলে অভিযান চালানো হয়।

তিনি বলেন, অভিযানে আনোয়ারা ভেটেরিনারি নামে একটি প্রতিষ্ঠানে গরু মোটাতাজার অবৈধ ওষুধ মেলে। তাছাড়া ঠিক একই সময়ে চাতরি চৌমুহনী এলাকায় কয়েকটি ফার্মেসীতে গিয়ে অনিবন্ধিত, ফিজিশিয়ান স্যাম্পল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ পাওয়া যায়।

প্রথমবারের মত সতর্ক করে দিয়ে ওই এলাকার মেসার্স পুষ্প মেডিকেল হলকে ১৫ হাজার, ইসলামিয়া ফার্মেসিকে ২০ হাজার, আনোয়ারা ভেটেরিনারিকে ৫ হাজার, মা ফার্মেসিকে ২০ হাজার, শেভরন ফার্মেসিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়াও ড্রাগ লাইসেন্স না থাকায় এসএন মেডিকেলকে এক হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বিএম/মহিউদ্দিন/রাজীব