মেসি এক ম্যাচ নিষিদ্ধ, সাথে জরিমানা

লাল কার্ড পেয়েছেন মেসি

কোপা আমেরিকার সদ্য সমাপ্ত আসরের তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছিলেন লিওনেল মেসি। তাছাড়া এই টুর্নামেন্টের আয়োজক সংস্থা সাউথ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশন (কনমেবল) এর সমালোচনা করেছিলেন তিনি। মেসি এই সংস্থাটিকে ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ বলেছিলেন। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানেও হাজির ছিলেন না আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

এসব ঘটনার জন্য শাস্তি পেতে হলো মেসিকে। তাকে এক ম্যাচে নিষিদ্ধ করার পাশপাশি ১৫০০ ডলার জরিমানা করা হয়েছে। বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ১ লক্ষ ২৭ হাজার টাকা। ২০২২ সালে কাতারে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচে মেসি খেলতে পারবেন না।

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির গ্যারি মেডেলের সাথে সংঘর্ষের ঘটনায় মেসিকে লাল কার্ড দেখিয়েছিলেন রেফারি। শুধু মেসি নয়, মেডেলকেও তিনি লাল কার্ড দেখিয়েছিলেন।

সেমিফাইনাল ম্যাচে ব্রাজিলের বিপক্ষে ২-০ গোলে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। ওই হারের পর মেসি বলেছিলেন, এই টুর্নামেন্টে ব্রাজিলকে চ্যাম্পিয়ন করার জন্য সবকিছুই করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার কনমেবল এর পক্ষ থেকে জানানো হয়, মেসির মন্তব্য ‘অগ্রহণযোগ্য’।

এদিন আর্জেন্টিনা-সম্পর্কিত আরেকটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে কনমেবল। আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান ক্লদিও তাপিয়াকে ফিফায় তাদের প্রতিনিধির পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার এই ফুটবল সংস্থাটি। কোপা আমেরিকা চলাকালে এবং পরে কনমেবলের সমালোচনা করেছিলেন তাপিয়া।

বিএম/এমআর