অবশেষে বিধবা ভাতার বই পেলেন সীতাকুণ্ডের বৃদ্ধা আয়শা খাতুন

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি : আয়শা খাতুন বয়স প্রায় ষাট। সংসারে কোন ছেলে মেয়ে নেই। স্বামী জাহাঙ্গীর আলম বিগত ৩০ বছর ধরে নিখোঁজ। দেখাশোনা করারও কেউ নেই। অভাব-অনটনের কারণে একবেলা খাবার জুটলে পরের বেলা উপোষ থাকতে হয়। সরকারীভাবেও জুটেনী কোন সহযোগীতা।

সীতাকুণ্ড উপজেলার ৯নং ভাটিয়ারী ইউনিয়নের ইমামনগর গ্রামের সিকদার বাড়ীর আয়শা খাতুনের কখনো মিলেনি বিধাবা ভাতা বা বয়স্ক ভাতা।

অবশেষে বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) ৯নং ভাটিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আলমগীর হোসেন মাছুম বৃদ্ধা আয়শা খাতুনের হাতে বিধবা ভাতার বই তুলে দেন। এছাড়া এককালীন ৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে ভাটিয়ারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজীম উদ্দিন বলেন, বৃদ্ধা আয়শা খাতুনের বিষয়টি এতদিন জানা ছিলনা, আমাদের ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য আলমগীর হোসেন মাছুমের মাধ্যমে জানার পর স্থানীয়দের মাধ্যমে খোঁজ-খবর নিয়ে ওই বিধবা মহিলাকে বিধবা ভাতার বই ও এককালীন ৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রতি মাসে ৭শ’ টাকা পাবেন তিনি।

এদিকে এতবছর পর বিধবা ভাতার বই পেয়ে দারুণ খুশি বৃদ্ধা আয়শা খাতুন। তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যের প্রতি।

বিএম/কামরুল ইসলাম দুলু/আরএস/