ইউ.পি নির্বাচনের জের
ফটিকছড়িতে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে আহত ৭

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি : ফটিকছড়ির খিরামে ইউ.পি নির্বাচনের জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ৩০ জুলাই (মঙ্গলবার) রাতে উপজেলার খিরাম ইউনিয়নের চৌমুহনী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, খিরাম ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সোহরাব হোসাইন সৌরভের সমর্থকদের সাথে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ শহিদুল আলমের সমর্থকদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলাগুলির ঘটনা ঘটে । এতে দু’পক্ষের অন্তত ৭ জন ব্যাক্তি আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আহতরা হলেন, মোঃ জাফর (৩৮), মোঃ সরফুদ্দীন (২৮), মোঃ ওসমান মানিক (২৭), মোঃ সরওয়ার (৩৫), নুর মোহাম্মদ (২৭), রতন ধর (৪০), হাবিব (৫৫)। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে্েলক্স প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ব্যাপারে খিরাম ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন সৌরভ বলেন, নির্বাচনের পর থেকে আমার পরাজিত প্রতিপক্ষ আমাকে ও আমার কর্মী-সমর্থকদের নানাভাবে উস্কানি দিয়ে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় আমার সমর্থকদের উপর হামলা করে।

জানতে চাইলে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল আলম বলেন, চেয়ারম্যান সৌরভের কিছু সাঙ্গ-পাঙ্গ খিরাম চৌমুহনী বাজারের ব্যবসায়ী আমার চাচাত ভাই কলিম উল্লাহ’র উপর হামলা চালায়। এলাকাবাসী খবর পেয়ে ছুটে গেলে তারা এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে।

এ ব্যাপারে বুধবার বিকালে ফটিকছড়ি থানার ওসি বাবুল আকতার বলেন, এ ঘটনায় দুই পক্ষ পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। দুই পক্ষই গোলাগুলির অভিযোগ করলেও ঘটনাস্থলে আমরা এ রকম কোন চিহ্ন পাইনি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন ওসি।

বিএম/এম জুনায়েদ/রাজীব..