এমপি দিদারের ডিপোতে প্রাইম মুভার চালক খুন

    বিএম ডেস্ক : সীতাকুন্ডের কালুশাহ মাজারের পাশে এমপি ‘র ট্রাক ডিপোতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছে এক প্রাইম মুভার চালক।

    তার নাম শাহজাহান সাজু (৪৮)। তিনি  নোয়াখালীর সেনবাগ এলাকার মৃত নুরুল আলমের পুত্র। সে চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের মালিকানাধীন ‘দিদারুল আলম ব্রাদার্স’ এর প্রাইম মুভার চালক বলে প্রাথমিক তথ্যে জানা গেছে।

    আজ ২৮ আগষ্ট বুধবার দুপুর ৩টার সময় (ড্যাব)এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান কাফিন এন্টারপ্রাইজ নামে পরিবহন সংস্থা অফিসে এই গুলির ঘটনাটি ঘটেছে।নিহতের লাশ বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে আছে।

    স্থানীয় কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী এ তথ্য নিশ্চিত করলেও কে গুলি করেছে কিংবা কি কারণে তাকে গুলি করা হয়েছে তার বিস্তারিত তথ্য কেউ জানাতে পারেনি।

    তবে তার মালিকানাধীন একটি ডিপোতে চালকদের অভ্যন্তরীন দ্বন্ধে একটি হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে স্বীকার করেছেন সংসদ সদস্য দিদারুল আলম।

    সংসদ সদস্য দিদারুল আলম জানান, ঘটনার সময় আমি ঢাকায় ছিলাম। ঘটনা শুনে রাত ৯টার ফ্লাইটে আমি চট্টগ্রামে এসেছি। কারা গুলি করে আমার ড্রাইভারকে হত্যা করেছে এবং কি কারণে এ হত্যাকান্ড ভাল করে খোজ খবর নিয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

    সীতাকুণ্ড থানার ওসি (তদন্ত) শেখ শামিম বলেন, ড্রাইভার সাজুকে কে বা কারা কি কারনে গুলি করেছে তা এখনো জানা যায়নি। বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি।

    তিনি বলেন, এমপি দিদার সাহেবের ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান ড্যাবের অফিসে এই গুলির ঘটনা ঘটেছে বলে আমরাও জানতে পেরেছি।

    অপর একটি সূত্রে জানিয়েছে বিকেল ৩টার সময় কেউ একজন শাহাজাহানকে সরাসরি গুলি করেছে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয় বিকেল ৪টায় আর রাত ৮ টার সময় সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

    চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চালকের মৃত্যুর তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই হামিদ।

    এদিকে চালক হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের দাবীতে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে কর্মবিরতির ঘোষণা দিয়েছে চট্টগ্রাম প্রাইম মুভার টেইলার এসোসিয়েশন।

    সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ মাইনুদ্দিন জানান, রাতে সংগঠনের এক জরুরী সভা থেকে কর্মবিরতি ঘোষণা করা হয়েছে।

    বিএম/আরএসপি..