বিয়ের আসরে ছুরিকাঘাতে কনের বাবা নিহত, যুবক আটক

বিয়ের আসরে ছুরিকাঘাতে কনের বাবা নিহত,ঘাতক যুবক আটক

রাজধানীর হাতিরঝিল এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ের অনুষ্ঠানে কনের বাবাকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ হামলায় জখম হয়েছেন কনের মাও। অভিযুক্ত ঘাতক সজীব আহমেদ রকিকে (২৩) আটক করেছে পুলিশ।

বৃহ্স্পতিবার দুপুরে ‍দিলু রোডে সাবেক বিজিএমইএ ভবনের পেছনে একটি কমিউনিটি সেন্টারে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হাতিরঝিল থানার উপপরিদর্শক আবদুর রব। তিনি জানান, নিহতের নাম তুলা মিয়া।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১২-১৫ জনকে নিয়ে ঘরোয়া ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে ঢুকে রকি হট্টগোল সৃষ্টি করে। এক পর্যায়ে কনের বাবা তুলা মিয়াকে (৪৭) ছুরিকাঘাত করে। এতে কনের মা ফিরোজা খাতুন বাধা দিলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে রকি। তখন দু’জনকে উদ্ধার করে নিকটস্থ ইনসাফ হাসপাতালে নেওয়া হলে তুলা মিয়াকে মৃত ঘোষণা করা হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয় ফিরোজা খাতুনকে।

অন্যদিকে তখনই রকিকে আটক করে গণপিটুনি দেয় জনতা। এরপর তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। এখন সে পুলিশি প্রহরা ঢামেকেই চিকিৎসাধীন।

একটি সূত্র জানায়, কনেকে রকি পছন্দ করতো। কিন্তু তার বিয়ের আয়োজনে ক্ষেপে যায় রকি। পরে চায়নিজ ছুরি নিয়ে সে ওই শুটিং প্লেসে ঢুকে কনেকে হত্যা করতে আক্রমণ করে। তখন কনের বাবা ও মা বাধা দিলে তাদের ছুরিকাঘাত করতে থাকে রকি।

বিএম/এমআর

আরো: ডেঙ্গু পরিস্থিতি আশঙ্কাজনক তবে নিয়ন্ত্রণের বাইরে নয় : ওবায়দুল কাদের