ডেঙ্গু নিয়ে নাগরিক উদ্দ্যেগের প্রচারণা অব্যাহত
প্রজননক্ষেত্র ধ্বংস করা গেলে সমূলে নির্মূল হবে এডিস মশা

চট্টগ্রাম মেইল : ডেঙ্গু রোগের ভয়াবহতা থেকে জনসাধারনকে সচেতন করার লক্ষ্যে প্রচারপত্র বিলি ও হ্যান্ডমাইকে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা মীলক প্রচারণা চালিয়েছে নাগরিক উদ্যোগের নেতৃবৃন্দরা।  আজ ৬ই আগস্ট মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় নগরীর ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড কৈবল্যধামস্থ মালী পাড়া থেকে শুরু হয় এ প্রচারণা।

নাগরিক উদ্যোগের প্রধান উপদেষ্টা ও নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম পবিত্র হজ পালন উপলক্ষ্যে দেশের বাইরে থাকায় আজকের প্রচারণার নের্তৃত্ব দেন সংগঠনের অন্যতম উপদেষ্টা হাজী মোঃ ইলিয়াছ।

প্রচারণার সময় স্থানীয় ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে নাগরিক উদ্যোগের নেতৃবৃন্দরা বলেন, ডেঙ্গু একটি মশাবাহিত ভাইরাস। এডিস মশাই এই রোগের একমাত্র বাহক। এরা সাধারনত বাসাবাড়ির টবে, ছাদের বাগানে, এসির পানি, ফ্রিজের পেছনে জমে থাকা পানিতে বংশবিস্তার করে। তাই মশার আবাস ও প্রজননক্ষেত্র ধ্বংস করতে পারলেই এডিস মশা নির্মূল হবে সমূলে।

এ জন্য বাসাবাড়ির আবদ্ধ জলাধার ধ্বংস করতে হবে। ফ্রিজের বা এসির পানি দুই দিন পরপর পরিষ্কার করতে হবে। বাসার বারান্দা এবং কার্নিশে খোলা টব থাকলে সেটা ২-৩ দিন অন্তর অন্তর পরিষ্কার করতে হবে। রাস্তার খানাখন্দ, পরিত্যক্ত টায়ার, প্লাষ্টিকের ড্রাম, মাটির পাত্র, ডাবের খোসা, যেখানে কিছুদিন পানি জমে থাকতে পারে সেখানেই এদের বসবাস ও প্রজনন। তাই এ সব জায়গায় যাতে পানি জমতে না পারে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি রাখতে হবে।

সম্প্রতি দেশব্যাপী ডেঙ্গু রোগে বেশ কয়েকজন রোগী মারা যাওয়ার ফলে সাধারন মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। নাগরিক উদ্যোগের নেতৃবৃন্দ তাই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে জনসাধারনকে সচেতনতা করতেই এ কর্মসূচীর আয়োজন করেছেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সমন্বিত উদ্যোগ এবং সচেতনতার মাধ্যমেই ডেঙ্গু রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

নেতৃবৃন্দরা বলেন, কিছু সতর্কতা অবলম্বন করলে এডিস মশার হাত থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। এরমধ্যে দিনে কিংবা রাতে ঘুমানোর সময় মশারি টাঙিয়ে ঘুমাতে হবে। ঘরে মশানিরোধক স্প্রে করতে হবে। বিশেষ করে শিশুদের ক্ষেত্রে স্কুল, কোচিং কিংবা খেলতে গেলে ফুলহাতা জামা প্যান্ট পরিধান করতে হবে।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আকবর শাহ থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান, এজাহারুল হক, নুরুল কবির, আজম খান, হাফেজ মোঃ ওকার উদ্দিন, শিশির কান্তি বল, শেখ মামুনুর রশীদ, আবুল হাসনাত সৈকত, শিবু দাশ, হারুনুর রশীদ, জাহাঙ্গীর আলম, জমির উদ্দিন মাসুদ, ইকবাল হোসেন, আবুল খায়ের, আবুল কালাম, মোঃ নাছির, স্বরূপ দত্ত রাজু, ফেরদৌস মাহমুদ আলমগীর, মোঃ ওয়াসিম, তৌহিদুল ইসলাম, আশরাফ উদ্দিন হাসনাত, মোঃ রানা, মোজাম্মেল হক সুমন, হাসান মুরাদ, মোঃ আনোয়ার, শিহাব, ইমন, আল সানী, গিয়াস উদ্দিন , সামীর আকাশ প্রমূখ।

বিএম/রাজীব সেন..