জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের মিছিলে হামলা, আহত ২০

    বাংলাদেশ মেইল :

    জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আবারো সংঘর্ষ হয়েছে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের মধ্যে। এতে অন্তত ২০ জন ছাত্র আহত হয়েছে।  ছাত্রদলের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতাকর্মিরা আবরার হত্যার প্রতিবাদে  মিছিল বের করলে,  মিছিলে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে । ।বুধবার (৯ অক্টোবর) সকাল ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

    ঘটনায় জবি ছাত্রদলের দুইজনকে আটক এবং দুইজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

    জানা যায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঁঠালতলায় সমবেত হয় এবং সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে থেকে আবরার হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবি নিয়ে একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি অবকাশ ভবনের সামনে আসলে পেছন থেকে শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা অতর্কিত হামলা চালায়।

    ছাত্রদল সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফিক বলেন, আবরার হত্যার প্রতিবাদ ও ছাত্রদলের ক্যাম্পাসে নিয়মিত যাওয়ার কর্মসূচি হিসাবে ক্যাম্পাসে গেলে ছাত্রলীগ আমাদের উপর হামলা করে। এর তীব্র নিন্দা জানাই। আমাদের ক্যাম্পাস, আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমরা নিয়মিত আসবো। এত কেউ বাধা দিল এর জবাব ক্যাম্পাসেই দেওয়া হবে।

    এ ঘটনায় জবি ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদক আলী হাওলাদার ও ছাত্রদল কর্মী জাহিদকে কোতোয়ালি থানায় আটক করা হয়েছে । এছাড়াও জবি ছাত্রদলের সহসভাপতি মিজানুর রহমান নাহিদকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং যুগ্ম-সম্পাদক মিজানুর রহমান শরীফকে সুমনা হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

    হামলায় বেশ কিছু ছাত্র আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এদের অধিকাংশই ছাত্রদলের কর্মি। আহতদের মধ্যে মিজান শরিফ নামের একজনের অবস্থা আশংকজনক বলে জানা গেছে। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।