ভোলায় পুলিশ-জনতার সংঘর্ষ, নিহত ৩ : আহত শতাধিক

বাংলাদেশ মেইল,  ডেস্ক :

ভোলায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে নিয়ে কুটূক্তি করার প্রতিবাদে বোরহানউদ্দিন উপজেলায় তৌহিদী জনতার সমাবেশে পুলিশ-জনতার সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত হবার খবর পাওয়া গেছর । এঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত রয়েছেন শতাধিক।

নিহত তিনজনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বোরহানউদ্দিন উপজেলা হাসপাতালের জরুরী বিভাগ।

 

তবে অসমর্থিত সুত্রে জানা গেছে, ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা আরো দুজন গুলিবিদ্ধ মারা গেছেন। ভোলা সদর হাসপাতালে নিহতের সংখ্যা নিয়ে স্থানীয় ও পুলিশের মধ্যে ভিন্নমত রয়েছে। হাসপতালের ডায়রীতে রয়েছে ২ জন। তবে স্থানীরা দাবি করছেন লাশ ৪ জন। দুজনকে পুলিশ আড়াল করছে। তবে সবমিলে নিহতের মূল সংখ্যাটি জানা যায়নি।

বোরহানউদ্দিন পৌর ৩ নং ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিল মিরাজ পাটোয়ারির ছোট ভাই মাহফুজুর রহমান ঘটনাস্থলে পুলিশের গুলিতে মারা গেছেন। নিহত অপর দুইজনের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
রবিবার সকাল ১১ টায় বোরহানউদ্দিন হাই স্কুল মাঠে পূর্ব ঘোষিত প্রত্যেক ইউনিয়ন থেকে কয়েক হাজার লোক একত্র হয়ে  নবী অবমাননা ও আল্লাহকে নিয়ে কটক্তি কারিকে ফাঁসির দাবিতে স্লোগান দিতে থাকা। কিন্তু সুষ্ঠু সমাবেশ সময়ের আগে শেষ করতে পুলিশের তাড়া দিলে জনতার মধ্যে ক্ষোভের দানা বাধতে থাকে। একপর্যায়ে তা রূপ নেয় সংঘর্ষে।

স্থানীয়রা জানান, সকাল এগারোটায় সমাবেশ হওয়ার কথা থাকলেও পুলিশ এগারোটার আগেই সমাবেশ শেষ করতে চাপ দেন। এতে করে দূরদুরান্ত থেকে আসা জনতারা ক্ষেপে গিয়ে পুলিশের ওপর ইট পাটকেল ছুরলে পুলিশ পাল্টা গুলি ছোড়লো সাংবাদিকসহ প্রায়  শতাধিক লোক আহত হয়।
তবে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত উত্তেজনা পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আহতদের নাম পরিচয় এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

অভিযোগ উঠেছে বোরহানউদ্দিনে বিপ্লব চন্দ্র শুভ নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। সে শুক্রবার বিকেলে তার নামের ফেসবুক আইডি থেকে তার ফ্রেন্ড লিস্টের বেশ কয়েক জনের কাছে আল্লাহ এবং রাসুল (সঃ) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালাগালের ম্যাসেজ আসে। বিপ্লব চন্দ্র শুভ বোরহানউদ্দিন উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের চন্দ্র মোহন বৈদ্দের ছেলে।
জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র নিজের নাম ও ছবি সম্বলিত ফেসবুক আইডি থেকে আল্লাহ তায়ালা ও নবী করিম (সঃ) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ গালাগাল করে তার তার কয়েকজন ফেসবুক বন্ধুর কাছে ম্যাসেজ করে। এক পর্যায় কয়েটি আইডি থেকে ম্যাসেজগুলোর স্ক্রিন সর্ট নিয়ে ফেসবুকে কয়েকজন প্রতিবাদ জানালে বিষয়টি সকলের নজরে আসে।