তিনটি মামলা হচ্ছে আউয়াল দম্পতির বিরুদ্ধে

দুদক

পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য একেএমএ আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা দায়েরের অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর মধ্যে আউয়ালের বিরুদ্ধে হচ্ছে দুটি মামলা। আর লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে একটি মামলা।

দুদকের উপ-পরিচালক আলী আকবর জানান, পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এ কে এম এ আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দায়ের করা হবে। সাবেক এই সংসদ সদস্য ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে তাঁদের সম্পদ বিবরণী নোটিশ জারির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, সাবেক এমপি আউয়াল অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে ছয়জন ভুয়া ব্যক্তিকে ভূমিহীন দেখিয়ে সরকারি খাস জায়গা ইজারা নেন। পরে ওই সরকারি জমিতে স্ত্রী লায়লা পারভীনের নামে তিনতলা ভবন তৈরি করে তা পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিকে ভাড়া দেন। এ অভিযোগে আউয়াল ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি মামলা করবে দুদক।
এছাড়া স্বরূপকাঠি উপজেলার ডাকবাংলোর কাছে সরকারি খাস জমি অবৈধভাবে দখল করে আধুনিক ভবণ নির্মাণ করেছেন সাবেক এই সংসদ সদস্য। এই অভিযোগে তার বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা হবে। পিরোজপুর শহরের খুমুরিয়া মৌজার রাজার পুকুর নামে পরিচিত ৪৪ শতাংশ সরকারি খাস জমির চারদিকে প্রাচীর নির্মাণ করে তা দখলে রাখার অভিযোগে আরেকটি মামলা হবে।

এদিকে বহুল আলোচিত এই সংসদ সদস্য ও তার স্ত্রীর অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ে অনুসন্ধান চালাচ্ছে দুদক। প্রাথমিক অনুসন্ধানে তাদের বিপুল সম্পদের তথ্য পেয়েছে সংস্থাটি। এরই ধারাবাহিকতায় তাদের কাছে সম্পদ বিবরণী চাওয়া হবে। এ বিষয়টিও কমিশন অনুমোদন দিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সবগুলো অভিযোগ অনুসন্ধান করছেন দুদকের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আলী আকবর।

বিএম