করোনা ঝুঁকিতে এশিয়া
ইউরোপে কমছে করোনার তেজ

বাংলাদেশ মেইল ::

গেল সপ্তাহ জুড়ে ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যে কেবলই বাড়ছিল কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী। একই সাথে  দীর্ঘ হচ্ছিল মৃত্যুর মিছিলও। মৃত্যুর বিভীষিকা ছড়িয়ে সোমবার এ চার দেশেই করোনার দাপট কিছুটা কমেছে। তবে করোনা এবার চোখ রাঙাচ্ছে এশিয়ায়।

বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানসহ অন্যান্য দেশে ধীরে চলা করোনা এবার দৌড় শুরু করতে যাচ্ছে। ফলে এসব দেশে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

পাশাপাশি দেশগুলোর জনমনে বাড়ছে ভয়। চীনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এলেও দেশটিতে এবার উপসর্গহীন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। জাপানেও হঠাৎ সংক্রমণ বেড়েছে। এজন্য ছয় মাসের জরুরি অবস্থার প্রস্তুতি নিচ্ছে দেশটি। খবর বিবিসি, রয়টার্স ও এএফপিসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

বাংলাদেশ সময় সোমবার রাত ১টা পর্যন্ত ওয়ার্ল্ডওমিটারসের তথ্য অনুযায়ী- করোনাভাইরাসে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৭৩ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১৩ লাখ। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ২ লাখ ৭৭ হাজারের বেশি মানুষ। করোনায় বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু দেখেছে ইতালি।

সেখানে এ পর্যন্ত সাড়ে ১৬ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৩২ হাজারের বেশি। তবে এত খারাপ খবরের মধ্যেও এবার আশার আলো দেখছে ইতালি। দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। রোববার গত দুই সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে কম মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে।

এদিকে করোনায় দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারত,পাকিস্তান, বাংলাদেশে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে জ্যামিতিক হারে।