লিবিয়ায় বাংলাদেশি হত্যা: রিমান্ডে ২, কারাগারে একজন

বাংলাদেশ মেইল:: লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনায় রাজধানীর পল্টন থানায় দায়ের করা দুই মামলায় মানবপাচারকারী দুজনের ফের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। একই থানার মামলায় আরেক মানব পাচারকারীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালন।

রোববার (১৪ জুন) বিকেলে শুনানি শেষে ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন, জাহাঙ্গীর হোসেন ও বাদশা ফকির। অন্যদিকে কারাগারে যাওয়া আসামি হলেন লিয়াকত আলী ওরফে লেকু শেখ।

এদিন আসামি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বাদশা ফকিরকে পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করে ফের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক (নি.) এস এম গফফারুল আলম। আর লেকু শেখেরও ৫ দিনের রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই আবুল বাশার মিয়া।

বিচারক শুনানি শেষে আদালত জাহাঙ্গীর হোসেন ও বাদশা ফকিরের সাত দিনের রিমান্ড এবং লেকু শেখকে কারাাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরআগে গত ৮ জুন এ তিন আসামির পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৮ মে লিবিয়ায় মানবপাচারকারীদের হাতে ২৬ বাংলাদেশি নিহত ও ১২ জন আহত হন। ওই ঘটনায় ৩৮ জনকে আসামি করে গত ২ জুন রাজধানীর পল্টন থানায় একটি মামলা দায়ের করেন সিআইডির উপ-পরিদর্শক রাশেদ ফজল। এরপর আরও বিভিন্ন থানায় ২২টি মামলা দায়ের করা হয়।