ডোনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবী রুডল গুলিয়ানির পদত্যাগ না করা

বাংলাদেশ মেইল:: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডল গুলিয়ানির বিরুদ্ধে তদন্তকারী ফেডারেল একজন শীর্ষ প্রকিসিউটর জিওফ্রে বারম্যান পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। প্রশাসন আকস্মিকভাবে তাকে সরিয়ে অন্য একজনকে নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত জানানোর পরই তিনি শুক্রবার পদত্যাগে অস্বীকৃতি জানান, এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এতে বলা হয়, এটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার-এর কিছু কর্মকান্ড নিয়ে নাটকীয়ভাবে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। অভিযোগ আছে, এসব কর্মকা-ের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে রাজনৈতিকভাবে সুবিধা দিচ্ছেন উইলিয়াম বার এবং একই সঙ্গে তিনি আইন মন্ত্রণালয়ের স্বাধীনতাকে ক্ষুন্ন করছেন।

রয়টার্স লিখেছে, ট্রাম্প তার পূর্ণ সমর্থনে আসবে না এমন কর্মকর্তাদের পরিশুদ্ধ করছেন অর্থাৎ সরিয়ে দিচ্ছেন পদ থেকে। সম্প্রতি তিনি পর্যবেক্ষক কয়েকটি এজেন্সিকে বরখাস্ত করেছেন, যারা এ বছরের শুরুর দিকে তার বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল।

শুক্রবার গভীর রাতে উইলিয়াম বার আকস্মিকভাবে ঘোষণা দেন যে, ম্যানহাটানের এটর্নি জিওফ্রে বারম্যান পদত্যাগ করছেন।

এক্ষেত্রে তিনি মনোনয়ন দেবেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়াম্যান জে ক্লেটনকে। কিন্তু উচ্চ মাত্রার সন্ত্রাস বিষয়ক মামলা, ওয়াল স্ট্রিটের আর্থিক অপরাধ এবং সরকারের দুর্নীতির মতো গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলোতে শক্তিশালী নেতৃত্ব দিয়েছেন জিওফ্রে বারম্যান। উইলিয়াম বারের ওই ঘোষণার কথা তিনি প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানতে পেরেছেন বলে দাবি বারম্যানের। তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, আমি পদত্যাগ করবো না। আমার পদ ত্যাগ করার কোনো ইচ্ছেও নেই। যখন প্রেসিডেন্ট কাউকে মনোনয়ন দেবেন এবং তা সিনেট নিশ্চিত করবে তখনই আমি পদত্যাগ করবো। এর আগে পর্যন্ত আমাদের তদন্ত কোনো বিলম্ব অথবা বিঘ্ন ছাড়াই সামনে এগিয়ে যাবে।