করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে তুরস্কের ব্যর্থতা

বাংলাদেশ মেইল::করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ব্যর্থ হচ্ছে তুরস্ক। এমনটাই মনে করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েফ এরদোগান।

শনিবার তিনি টেলিভিশনে এ নিয়ে একটি বক্তব্য রাখেন। এতে জাতির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে তুরস্ক যে যুদ্ধ করছে তাতে আমরা ব্যর্থ হচ্ছি (লস্ট গ্রাউন্ড)। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে, মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখলে আবারো আমরা ঘুরে দাড়াতে পারব। এসব পদক্ষেপ দেশের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারেও সাহায্য করবে বলে জানান তিনি। এ খবর দিয়েছে মিডল ইস্ট মনিটর।

প্রাথমিকভাবে করোনা সংক্রমণ থামাতে সফল হয়েছিল তুরস্ক। এর প্রেক্ষিতে এ মাসে রেস্তোরাঁ ও ক্যাফেগুলো খুলে দিয়েছে আঙ্কারা।
একইসঙ্গে ঘরে থাকার বিষয়ে যেসব নির্দেশ ছিল তা তুলে নেয়া হয়েছে। ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞাও নেই আর। কিন্তু গত এক জুন থেকে দেশটিতে প্রতিদিন শনাক্তের সংখ্যা দুইগুন হয়ে গেছে। ফলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, তুরস্কে নতুন করে ছড়িয়ে পরতে শুরু করেছে মহামারি।

এরদোগান তার বক্তব্যে বলেন, স¤প্রতি যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে বোঝা যায় আমরা ব্যর্থ হচ্ছি। কিন্তু আমরা এই মহামারি দূর করতে চাই। এ জন্য পরিস্কার থাকা, মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

বিশ্বের যেসব দেশে করোনা ভাইরাস ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে তার মধ্যে তুরস্ক অন্যতম। দেশটিতে প্রধান শহরগুলোতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ পর্যন্ত তুরস্কে করোনা আক্রান্ত চিহ্নিত হয়েছে ১ লাখ ৮৫ হাজারের বেশি। এর মধ্যেই লকডাউন খুলে দিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছে এরদোগান সরকার। দেশটির স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরকারি সিদ্ধান্তের নিন্দা করেছেন। স্কুলে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেয়া শুরু হয়েছে। সেসব ছবিও ব্যাপক হারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।