টেকনাফে সমুদ্র সৈকতে ভেসে আসলো বিরল প্রজাতির মৎস্য প্রাণী

বাংলাদেশ মেইল :: 

টেকনাফে সমুদ্র সৈকতে ভেসে আসলো  বিরল প্রজাতির মৎস্য প্রাণী। এটার বিশাল আকৃতি  দেখে অনেকে এটিকে  তিমি মাছ বলছে। অরেকেই আবার বলছেন এটি ডলফিন ।

স্থানীয়রা জানায়, ২০ জুন (শনিবার) শাহপরীর দ্বীপ পশ্চিম সমুদ্র সাগরে জীবিত তিমি খেলা করতে দেখতে পায়। এর দুইদিন পর ২২ জুন (সোমবার) সকালে ঘোলারচর উপকূলে ভেসে আসা নিষ্প্রাণ বিরল প্রজাতির এই মৎস্য প্রাণীটি দেখে অনেকে জীবিত খেলা করা তিমি বলে মনে করেছেন স্থানীয়রা ।

টেকনাফ উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন জানান, টেকনাফের সমুদ্র সৈকত ও নাফনদীর সংযোগ স্থলের মোহনা ঘোলারচর পয়েন্টে একটি বিরল প্রজাতির মৎসপ্রাণী দেখতে পায়। প্রথমে মাছটির উপরের অংশ দেখে  এটি ডলফিন মনে হলেও পেটের নিচের অংশ দেখে মনে হয়েছে এটি তিমি মাছ।

তিনি বলেন, এটিকে তিমির বাচ্চাও বলা ঠিক হবে না কারণ যদিও সাইজে দেখে মনে হচ্ছে মধ্য বয়সী একটি তিমি। বর্তমানে মাছটি ঘোলারচর পয়েন্টের বালিয়াড়িতে পড়ে রয়েছে এটি । ধারনা করা হচ্ছে গভীর সাগরে প্রাকৃতির দূর্যোগের কবলে পড়ে মাছটি আহত হয়। পরে ওটি আহতাবস্থায় নিষ্প্রাণ হয়ে উপকুলে ভেসে এসেছে।

তিনি আরো জানান- হয়তো মৃত তিমির বাচ্চাটি ব্লকে আঘাত পেয়ে রক্তাক্তও হয়। পরে জোয়ারের পানিতে বারবার ব্লকে আটকা পড়লে স্থানীয় যুবক ও জেলেরা এটিকে সাগরে ফিরে যেতে সহায়তা করে। ওই তিমিটি ব্রীডস হোয়লে প্রজাতির তিমি হতে পারে। হয়তো অসুস্থতার কারণে বিভ্রান্ত হয়ে টেকনাফ সৈকতের কিনারায় এসে তিমিটি মারা যায়।

বিরল প্রজাতির এই মৎস্য প্রাণী মৃত দেহ সমুদ্রে ভাসছে এটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব পরিবেশ সংশ্লিষ্টরা।