চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যু ১৪৪, একমাসেই ৯৯ জন

বাংলাদেশ মেইল ::  

চট্টগ্রামে বেড়েই চলেছে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। চট্টগ্রাম জেলায় গত এপ্রিল মাসে প্রথম শনাক্তের পর এখন পর্যন্ত সর্বমোট আক্রান্ত হয়েছেন ৬৬৯৭ জন। আক্রান্ত হয়ে এই পর্যন্ত মৃত্যুবরন করেছেন ১৪৮ জন। যাদের দুই তৃতীয়াংশের মৃত্যু হয়েছে গত এক মাসে।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় গত ৩ এপ্রিল।

আক্রান্ত হয়ে প্রথম রোগী মৃত্যুবরন করেন গত ৮ এপ্রিল। সেই থেকে আজ অবধি চট্টগ্রামে করোনায় মারা গিয়েছে সর্বমোট ১৪৮ জন। যাদের মধ্যে ৯৯ জনই মারা গিয়েছেন গত এক মাসে।

মাসভিত্তিক পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত ২২ মে হতে ২২ জুন পর্যন্ত প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘায়িত হয়েছে। এই একমাসে মৃত্যুবরন করেছেন সর্বমোট ৯৯ জন। এরমধ্যে শুধুমাত্র ১ লা জুন মৃত্যুবিহীন একটি দিন পার করে চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রামবাসীকে একদিনে ৬ মৃত্যুর ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে হয় গত ২৯ মে, ৬ জুন ও ১৪ জুন। এছাড়া প্রতিদিনই ১ থেকে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে হাসপাতাল, বাসা কিংবা চিকিৎসা সেবা খুঁজতে খুঁজতে পথিমধ্যে।

এছাড়া নমুনা পরীক্ষা হয়নি কিন্তু উপসর্গ নিয়ে মারা গিয়েছেন এমন সংখ্যা প্রকৃত সংখ্যা অপেক্ষা দ্বিগুন বলে জানিয়েছেন দাফন ও সৎকারে নিয়োজিত ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানসমূহ।

বন্দরনগরীতে প্রথম করোনা নমুনা পরীক্ষা শুরু হয় ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডি ল্যাবে। এরপর পর্যায়ক্রমে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এ্যানিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও সদ্য ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল করোনার নমুনা পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে।

এছাড়া জট কমাতে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পটিয়া, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া, লোহাগাড়া উপজেলার নমুনা পরীক্ষায় করিয়ে আসছে।

সর্বশেষ ২৩ জুন চট্টগ্রামে ৯২৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে আরও ২১৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এর মধ্যে ১৬৪ জন নগরের ও ৫৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুবরন করেছেন আরও ৪ জন।