নিন্দা ও হত্যাকারীর বিচার দাবি
মারা গেলেন মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় আহত ছাত্রদল কর্মি অভি

বাংলাদেশ মেইল ::  

মাদকের ব্যবসায়ীদের হামলায় আহত ছাত্রদল কর্মি  মারা  অভি মৃত্যুবরন করেছেন   । মীর সাদেক অভি (২২) নামে এই ছাত্রদল কর্মী মঙ্গলবার (২৪ জুন) দিবাগত রাত ২টায় চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন হাসপাতালে মারা যান।

মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি নাজিমুর রহমান নাজিম নেতা  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত অভি মীর নগরীর ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদ হাজিপাড়ার বাসিন্দা।

জানা যায়, গত ১৮ জুন সন্ধ্যায় অভি মীরসহ এলাকার যুবকরা মাদক বিক্রি ও মাদক সেবনের বিরুদ্ধে এলাকায় প্রতিবাদ করে । ঘটনার জের ধরে তারা কয়েকজন মাদক বিক্রেতাকে ধরতে গেলে মাদক ব্যবসায়ীরা অভিকে  ছুরিকাঘাত করে। অভির বুকে,  পিঠ এবং পেটে ছুরিকাঘাত করলে গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে তার অবস্থার অবনতি হলে সোমবার দুপুরে তাকে নগরীর মেট্টোপলিটন হাসপাতালে নেয়া হয়। এক সপ্তাহ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে রাত ২টায় অভি মারা যান।

এর আগে আহত হওয়ার পর অভি নিজে বাদী হয়ে তার উপর হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ডবলমুরিং থানায় মামলা দায়ের করেন।

নগর ছাত্রদল নেতা সৌরভ প্রিয় পাল বলেন, অভি এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলো। সবসময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতো মেধাবী এই ছাত্রনেতা। এলাকার মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের পথের কাঁটা হওয়ায়, তাকে হত্যা করেছে মাদক সন্ত্রাসীরা। আমরা নগর ছাত্রদল অনতিবিলম্বে অভির খুনীদের গ্রেপ্তার সহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। যেহেতু মৃত্যুর পূর্বে অভি নিজেই বাদী হয়ে নাম উল্লেখসহ মামলা করেছে, তাই খুনিরা চিহ্নিত। তাদের গ্রেফতারের দাবী জানাই।

মীর সাদেক অভি’র হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে নগর বিএনপির সভাপতি ডাঃ শাহাদাত হোসেন ও সাধারন সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর । অভি হত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবি তুলেছেন বাংলাদেশ  জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী,  বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান,  সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম।