দেশের এলপিজি সেক্টরে যুক্ত হচ্ছে ইন্ডিয়ান অয়েল

বাংলাদেশ মেইল ::  

বাংলাদেশের এলপিজি সেক্টরে যুক্ত হচ্ছে ইন্ডিয়ান অয়েল। এ উপলক্ষে ভারতের আইওসি মিডল ইস্ট এফজেডই এবং বাংলাদেশের বেক্সিমকো এলপিজির নিয়ন্ত্রক সংস্থা আরআর হোল্ডিংস লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভারত সরকারের পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস, ইস্পাত বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান।

তিনি বলেন, দুবাইভিত্তিক ইন্ডিয়ান অয়েলের একটি সংস্থা বাংলাদেশের এলপিজি সংস্থার সঙ্গে যোগ দিচ্ছে। এলপিজির ব্যাপক ব্যবহারে ভারতের সাফল্যের মতোই এই নতুন যৌথ উদ্যোগ বাংলাদেশে সাশ্রয়ী মূল্যের এলপিজির ব্যবহার বৃদ্ধির মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক পরিবর্তনের সহায়ক হবে।

ইন্ডিয়ান অয়েল করপোরেশনের চেয়ারম্যান সঞ্জীব সিং বলেন, ইন্ডিয়ান অয়েল ১৯৯৯ সালে লুব্রিক্যান্ট বিপণন দিয়ে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছিল। আজ বাংলাদেশের একটি শক্তিশালী অংশীদারের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

‘বাংলাদেশের এলপিজি বাজার গত পাঁচ বছরে পাঁচগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং প্রত্যাশা করা হচ্ছে বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ১২ থেকে ১৩ শতাংশ বাড়বে। নতুন যৌথ সংস্থা (জেভিসি) ইন্ডিয়ান অয়েলের মূল দক্ষতা এবং বেক্সিমকোর স্থানীয় দক্ষতা থেকে শক্তি অর্জন করবে। ব্যবসায়িক পরিকল্পনা অনুসারে, সংস্থাটি বেক্সিমকোর বিদ্যমান এলপিজি সম্পদ গ্রহণের মাধ্যমে কাজ শুরু করবে।’

এতে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ছাড়াও ভারতীয় হাইকমিশনার শ্রীমতী রীভা গাঙ্গুলি দাশ উপস্থিত ছিলেন।