পটিয়ায় দুই মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার পর বাবার আত্নহত্যার চেস্টা

বাংলাদেশ মেইল :: 

চট্টগ্রামের পটিয়ার কাশিয়াইশ এলাকায় দুই মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। হত্যার পর মেয়ে দুটি বাবাও বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার ভোরে কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো- কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও এলাকার মুকুন্দ বড়ুয়ার মেয়ে টুকু বড়ুয়া ও নিশি বড়ুয়া। টুকু বড়ুয়া ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ও নিশি বড়ুয়া ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।

জানা যায়, কয়েক বছর আগে মুকুন্দ বড়ুয়ার স্ত্রী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তারপর থেকে দুই মেয়েকে নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন তিনি। বুধবার ভোরে দুই মেয়েকে গলাটিপে হত্যার পর মুকুন্দ বড়ুয়া নিজে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে।

পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বোরহান উদ্দীন জানান, ভান্ডারগাঁও এলাকার এক ব্যক্তি তার দুই মেয়েকে গলাটিপে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কারণ জানা যাবে বলে জানান তিনি।