পার্ক ভিউ হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে মারা গেলেন শিকলবাহা আ’লীগ নেতা

বাংলাদেশ মেইল ::

নগরীর বেসরকারী হাসপাতাল পার্কভিউ হসপিটালে  চিকিৎসা না পেয়ে রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ করেছেন স্বজনরা। বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসা না পেয়ে মৃত্যুবরন করেন চট্টগ্রামের শিকলবাহা এলাকার জনৈক মোঃ হোসেন  প্রকাশ বাঁচা মিয়া (৬৫)  ।

তিনি কর্নফুলি উপজেলার শিকলবাহা ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। মোঃ হোসেনের স্বজনদের অভিযোগ করোনা উপসর্গের অযুহাত দেখিয়ে দীর্ঘ দুই ঘন্টা  হার্টের রোগী হোসেনকে চিকিৎসা না দিয়ে পার্ক ভিউ হসপিটালের ইমার্জেন্সীতে রেখে দেবার কারনে তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহতের পারিবারিক সুত্র জানায়,  ১৫জুন  বুকের ব্যাথা নিয়ে এই রোগী পার্ক ভিউ হসপিটালেে ভর্তি হতে আসলে শুরুতে সিট নেই বলে তাকে ফিরিয়ে দেয়া হয়। পরে অনেক অনুরোধের পর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। ১৭ জুন তার কোভিট টেস্ট করা হয়। ইতিমধ্যে কোভিট নেগেটিভ রিপোর্টও আসে তার। ১৬ জুন থেকে পার্ক ভিউর ৮২২ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। শ্বাস কস্টের কারনে তাকে সিসিইউ’তে রাখা হয়।

ভর্তির ৫ দিন পর  রোগী সুস্থ হলে তাকে বাড়ি নিয়ে যান স্বজনরা।

মৃত মোঃ হোসেনের ভাতিজা ইসহাক ঈমন  জানায়, পরবর্তীতে ২৬ জুন তিনি পুনরায় অসুস্থ হলে তাকে আবারো পার্ক ভিউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল বুধবার (১ জুলাই)  সন্ধ্যায় রোগীকে রিলিজ করলে স্বজনরা তাকে বাড়ি নিয়ে যায়। কিন্তু আজ বৃহস্পতিবার  ভোরে পুনরায় এই রোগীর বুকের ব্যাথা অনুভব করলে তাকে পার্কভিউ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সকাল ৭ টা থেকে দুই ঘন্টা  রোগীকে ইমার্জেলন্সিতে রাখলেও হার্টের কোন চিকিৎসা দেওয়া হয়নি, বলে অভিযোগ করেছেন মৃত হোসেন সওদাগরের স্বজনরা। ইসহাক ঈমন  প্রতিবেদককে জানান  গতকাল সন্ধ্যায় রিলিজ হওয়া এই হার্টের পেসেন্টকে করোনা উপসর্গের রোগী হিসেবে সন্দেহ করে  হাসপাতালের দায়িত্বরতরা কোন চিকিৎসা দেননি। পরবর্তীতে বুকের ব্যাথায় কাতর এই রোগী বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করেন।

আইসিইউ ডাক্তার আশরাফ রোগীর স্বজনদের জানান,  ৪ র্থ তলায় কোন আইসিইউ খালি নেই। কিন্তু ৮ ম তলায় আইসিইউ বেড খালি থাকলেও শ্বাসকষ্ট বা করোনা উপসর্গ থাকার কারনে রোগীকে সেখানে ভর্তি করানো সম্ভব নয়।

এভাবে ইমারজেন্সিতে  দেড় ঘন্টা পার করে অক্সিজেন লাগানো অবস্থায় মৃত্যু হয় মোঃ হোসেনের। অক্সিজেনও রোগী নিজে সাথে করে নিয়ে এসেছিল।

জানতে চাইলে শিকলবাহা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম চৌধুরী জানান,  হাসপাতালের অবহেলার কারনেই আওয়ামী লীগ নেতা  হোসেনের মৃত্যু হয়েছে৷ তার তিন ছেলে ও তিন মেয়ে রয়েছে। পিতার আকষ্মিক মৃত্যুতে তারা বাকরুদ্ধ। ‘

তবে পার্কভিউ কর্তৃপক্ষ বলছেন ভিন্ন কথা। পার্ক ভিউ হসপিটালের জিএম তালুকদার  জিয়াউর রহমান জানান, রোগীর রেসপেরটরি সমস্যার কারনে সিসিইউতে রোগীকে রাখা যাচ্ছিল না । ৮ ম তলায় সিসিইউ ইউনিটে সিট খালি থাকলেও রোগীর জন্য আইসিইউ প্রয়োজন ছিল। কিন্তু আইসিইউ সে সময় খালি ছিল না।

তিনি জানান, বর্তমানে ১২ জন রোগী আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন হাসপাতালে।