রাত পোহালেই লকডাউন ওয়ারী, শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি সম্পন্ন

বাংলাদেশ মেইল ::  

রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ওয়ারী এলাকাকে শনিবার (৪ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে ২১ দিনের জন্য লকডাউন করা হবে। সরকারি এমন নির্দেশনা বাস্তবায়নে পুরো প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বাস্তবায়নকারী একাধিক সংস্থা।

পুলিশ জানায়, লকডাউন বাস্তবায়নে নির্ধারিত এলাকা থেকে সব ধরনের প্রবেশ বন্ধ থাকবে এবং বাইরে বের হওয়ার জন্য খোলা থাকবে রাংকিন স্ট্রিট টিপু সুলতান ক্রসিং এবং হট কেকের মোড়। জনসাধারণের চলাচল নিয়ন্ত্রণসহ সার্বিক পরিস্থিতি নজরদারিতে পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে।

সরেজমিনে দেখা যায়, ওয়ারী এলাকার মোট ১৭টি প্রবেশ পথের মধ্যে ১৫টিতে বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। লকডাউনের বিষয় নিয়ে এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে।

লকডাউন প্রসঙ্গে ৪১ নং ওয়ার্ড কমিশনার সারোয়ার হোসেন বলেন, ‘ওয়ারীকে লকডাউনের জন্য প্রয়োজনীয় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন।’

তিনি আরও জানান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি লকডাউন হওয়া এলাকায় দুইশ জন স্বেচ্ছাসেবক কাজ করবেন। তিনটি রোড ও পাঁচটি গলি এই লকডাউনের অধীনে থাকবে।

রোডগুলো হলো- টিপু সুলতান রোড, যোগীনগর রোড ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক (জয়কালী মন্দির থেকে বলধা গার্ডেন)। গলিগুলোর মধ্যে রয়েছে লারমিনি স্ট্রীট, হেয়ার স্ট্রীট, ওয়্যার স্ট্রীট, র্যাংকিং স্ট্রীট ও নবাব স্ট্রীট।

এদিকে লকডাউন চলা অবস্থায় আইন অমান্য করলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি দিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ প্রসঙ্গে উপ-পুলিশ কমিশনার (ওয়ারী বিভাগ) শাহ ইফতেখার আহমেদ  জানান, ওয়ারী থানা ও ফাঁড়িসহ দুই শিফটে ৮০ জন্য পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবে।