সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি প্রাধান্য পাবে
আজ নগরীর কোরবানী হাটগুলোর ইজারা

বাংলাদেশ মেইল :: 

করোনা পরিস্থিতিতে ঈদুল আজহা’কে সামনে রেখে  নগরীর বিভিন্ন এলাকার গরুর হাট বসানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। বুধবার (৮ জুলাই) নগরীর কোরবানী হাটগুলোর ইজারা দেবে সিটি কর্পোরেশন।  গত ২৯ জুন দরপত্র আহ্বানের পর আজ আগ্রহীদের ইজারা বণ্ঠন করবে কর্পোরেশনের রাজস্ব বিভাগ।

গত বছর নগরীতে স্থায়ী-অস্থায়ী মিলে মোট ৯টি পশুর হাট বসলেও এবার দু’টি হাট বাদ দেয়া হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির কারনে  এবার নগরীতে কমানো হচ্ছে হাটের সংখ্যা।

গত বছর নগরীতে স্থায়ী-অস্থায়ী মিলে পশুর হাটের সংখ্যা ছিল ৯টি। করোনা সংক্রমণ ঝুঁকি কমাতে এবার দুইটি অস্থায়ী হাট বাদ দেয়া হচ্ছে। দুই স্থায়ী পশুর হাট সাগরিকা গরুর বাজার ও বিবির হাট থাকছে আগের মতোই। এর বাইরে বসানো হবে ৫টি অস্থায়ী পশুর হাট । এগুলো হলো- কর্ণফুলি পশুর হাট, কমল মহাজন হাট গরু বাজার, সল্টগোলা গরুর বাজার, পতেঙ্গা বাটার ফ্লাই পার্কের দক্ষিণে টিকে গ্রুপের খালি মাঠ ও স্টিল মিল বাজার গরুর হাট।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. মুফিদুল আলম জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে চট্টগ্রাম মহানগরীতে দুইটি স্থায়ী বাজারের পাশাপাশি চারটি অস্থায়ী বাজার বসানোর প্রাথমিক সিদ্ধান্ত ছিল। পরবর্তীতে ক্রেতা সাধারণের সুবিধার জন্য পতেঙ্গা স্টিল মিল বাজারেও পশুর হাট বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর ইজারাদারদের সঙ্গে বৈঠক করে পশুর হাটে কিভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করা যায়, সে বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হবে। মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী নগরীর পশুর হাটগুলোর জন্য স্বাস্থ্যবিধি তৈরি করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সিটি মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিন জানান, নগরীর গরু বাজারগুলোতে  ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে সামাজিক দুরত্ব বজায় ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে তদারকির পাশাপাশি ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হবে । প্রতিটি বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা ও স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের বিষয়টি জোর দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন চসিক’র মেয়র ।