ভারতে হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে গুগল

বাংলাদেশ মেইল :: 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল আগামী পাঁচ থেকে সাত বছরের মধ্যে ভারতে ১০ বিলিয়ন বা ১ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে। এই অর্থ বাংলাদেশের প্রায় ৮৫ হাজার কোটি টাকার সমান, যা ভারতের প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ করবে বহুজাতিক কোম্পানিটি। গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সুন্দর পিচাই ‘অ্যানুয়েল গুগল ফর ইন্ডিয়া’ শীর্ষক তাঁদের একটি বার্ষিক অনুষ্ঠানে বিশাল বিনিয়োগের এই ঘোষণা দেন। অনলাইনে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।

সুন্দর পিচাই বলেন, ভারতে এই বিনিয়োগের মাধ্যমে ভারতের জন্যই পণ্য ও সেবা উৎপাদন করা হবে, যা ব্যবসা খাতে প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ডিজিটাল বা প্রযুক্তিকেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে, যা সামাজিকভাবে দেশটির জন্য ভালো হবে।

গুগলের সিইও বলেন, ‘ভারতের ভবিষ্যৎ ও দেশটির ডিজিটাল অর্থনীতির সম্ভাবনা বিবেচনা করে আমাদের মধ্যে যে আস্থা তৈরি হয়েছে, তার প্রতিফলন হলো বিনিয়োগের এই ঘোষণা।’ তিনি বলেন, ভারতে বর্তমানে সক্রিয়ভাবে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী মানুষের সংখ্যা ৫০ কোটির বেশি। সে জন্য ভারতই সম্ভবত গুগলের জন্য সবচেয়ে সম্ভাবনাময় বাজার।

গুগল ফর ইন্ডিয়া ডিজিটাইজেশন ফান্ডের (জিআইডিএফ) মাধ্যমে ভারতে বিনিয়োগ করবে মার্কিন কোম্পানিটি। সুন্দর পিচাই জানান, ভারতের প্রযুক্তিগত অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগে গুগল চারটি ক্ষেত্রে চারটি বিষয়ে জোর দেবে। সেগুলো হচ্ছে প্রথমত, ভারতের প্রত্যেক নাগরিকের জন্য নিজের ভাষায় তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার ও তথ্য পাওয়া নিশ্চিত করা হবে। দ্বিতীয়ত, ভারতের জন্য খুবই প্রয়োজন ও প্রাসঙ্গিক এমন পণ্য সেবাই উদ্ভাবন ও বাজারজাত করা হবে। তৃতীয়ত, স্থানীয় পর্যায়ের ব্যবসা–বাণিজ্যের ক্ষেত্রে যাঁরা ডিজিটাল সেবা দিতে আগ্রহী, তাঁদের সহায়তা করা হবে। চতুর্থত, সামাজিকভাবে মঙ্গল বয়ে আনবে, এমন ধরনের প্রযুক্তি ও আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা উদ্ভাবন ও বিপণন গুরুত্ব পাবে, যা স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও কৃষি খাতের কাজে লাগবে।

গুগলের সিইও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্রজেক্টের সমর্থনে কথা বলেন। মোদির এই প্রকল্পে ভারতে প্রযুক্তি খাতের অবকাঠামো উন্নয়নে জোর দেওয়া হয়েছে।

এদিকে মোদি এক টুইট বার্তায় জানান, গুগলের বিনিয়োগের বিষয়ে পিচাইয়ের সঙ্গে তাঁর আলাপ হয়েছে, যাতে প্রযুক্তির ক্ষমতা কাজে লাগিয়ে ভারতের কৃষক, যুব সম্প্রদায় ও উদ্যোক্তাদের জীবন বদলে দেওয়া যায়।

তবে ভারত ইতিমধ্যেই গুগলের অ্যান্ড্রয়েড, সার্চ ইঞ্জিন ও ইউটিউবের মতো পণ্য সেবাগুলোর একটি বড় বাজার হয়ে উঠেছে। এখন প্রায় ২৪ কোটি ৫০ লাখ ভারতীয় ইউটিউব ব্যবহার করেন।

বর্তমানে ভারতের ছোট শহরগুলোও এবং এমনকি গ্রামাঞ্চলেও আঞ্চলিক ভাষায় ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়ছে। গুগলের বিনিয়োগের ঘোষণাকে খুবই আকর্ষণীয় বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, ভারতে টিকটক ও উইচ্যাটসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপস নিষিদ্ধ করার পরিস্থিতিতে গুগল দেশটিতে বিনিয়োগের ঘোষণা দিল।