কর্ণাটক রাজ্যের পাঠ্যপুস্তক থেকে বাদ যাচ্ছে টিপু সুলতান

বাংলাদেশ মেইল ::

ব্রিটিশ ভারতে আঠারো শতকের মহীশুরের শাসক টিপু সুলতান ও তারা বাবা হায়দার আলীর উপর ভিত্তি করে অধ্যায়টি কর্ণাটক রাজ্যের সপ্তম শ্রেণির সামাজিক বিজ্ঞান পাঠ্যপুস্তক থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারিতে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে পাঠ্যক্রম হ্রাস করার সিদ্ধান্তের আলোকে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। তবে ষষ্ঠ ও দশম শ্রেণির পাঠ্যপুস্তকে টিপু সুলতানকে নিয়ে অধ্যায় থাকছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, সংশোধিত সিলেবাস কর্ণাটক পাঠ্যপুস্তক সোসাইটির ওয়েবসাইটে আডলোড করা হয়েছে। এতে দেখা গেছে, সপ্তম শ্রেণির সামাজিক বিজ্ঞান বইয়ের পঞ্চম অধ্যায়ে হায়দার আলী ও টিপু সুলতান, ঐতিহাসিক স্থান ও প্রশাসনিক কমিশনার বাদ দেওয়া হয়েছে।

কয়েক মাস আগে পাঠ্যসূচী থেকে টিপু সুলতান সম্পর্কিত অধ্যায় বাদ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা। ওই সময় তিনি বলেছিলেন,  আমাদের সরকার রাজ্যের পাঠ্যবই থেকে টিপু সুলতানের ইতিহাস প্রসঙ্গ মুছে ফেলার চেষ্টা করছে। পাঠ্যবইয়ে এই ধরনের বিষয় থাকা উচিত নয়। ১০১ শতাংশ নিশ্চিতভাবে বলতে পারি, আমরা এটা হতে দেব না।

উল্লেখ্য, টিপু সুলতানের জন্ম ১৭৫০ সালের ২০ নভেম্বর। ইংরেজদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ১৭৯৯ সালে নিহত হন। বীর যোদ্ধা টিপু সুলতানের খ্যাতি ছিল। টিপু সুলতানকে নিয়ে কর্নাটকে কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে গত কয়েক বছর ধরে বিরোধ চলছে। কর্ণাটকে টিপু জয়ন্তী পালন বন্ধ করে দেয় বিজেপির রাজ্য সরকার।