গোপালগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

বাংলাদেশ মেইল ::

গোপালগঞ্জে মধুমতি নদী ও কুমার নদের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। এতে গোপালগঞ্জ সদর, কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর উপজেলার নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে ১৫ হাজার মানুষ।

জানা গেছে, জেলার মধুমতি নদী ও কুমার নদের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় সদর উপজেলার উলপুর, নিজড়া, হরিদাসপুর, কাশিয়ানী উপজেলার সিংগা, হাতিয়াড়া, পুইশুর, মুকসুদপুর উপজেলার দিগনগর ইউনিয়নের নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে নতুন করে দুই সহস্রাধিক পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। পানিবন্দী এলাকার অন্তত ৪’শ পরিবার প্লাবিত এলাকার স্কুল ও পাকা সড়কের পাশে উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন। প্লাবিত এলাকার কাঁচা ও আধা পাকা সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় চরম দূরাবস্থার মধ্যে পড়েছে এসব এলাকার মানুষ। ইতিমধ্যে শত শত মাছের ঘের তলিয়ে গেছে। ওই সব ঘের মালিকেরা নেট দিয়ে মাছ রক্ষার আপ্রাণ চেষ্টা করছেন।

গোপালগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, মধুমতি নদী বিপদসীমার ২ সেন্টিমিটর বেড়ে ২৮ সেন্টিমিটার ও মধুমতি বিলরুট চ্যানেলের পানি ১০ সেন্টিমিটার বেড়ে ১০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।