কানাডার অর্থমন্ত্রী বিল মর্নিউ পদত্যাগ করেন

বাংলাদেশ মেইল::

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে বিরোধে পদত্যাগ করেছেন তার অর্থমন্ত্রী বিল মর্নিউ। ট্রুডো তার খরচ বিষয়ক যে নীতি গ্রহণ করেছেন এবং একটি দাতব্য সংস্থার সঙ্গে তার সম্পর্ক থাকার বিষয়ে দু’জনের মধ্যে মতানৈক্য দেখা দেয়। এর জের ধরে পদত্যাগ করেন তার অর্থমন্ত্রী।

এর পর কনজার্ভেটিভ পার্টির নেতা অ্যানড্রু শিয়ার টুইটারে বলেছেন, মর্নিউয়ের পদত্যাগ ট্রুডো সরকারের ভিতরকার বিশৃংখলার আরেকটি প্রমাণ। পদত্যাগ করে মর্নিউ বলেছেন, তিনি আর পার্লামেন্ট নির্বাচনে লড়াই করবেন না।

এর পরিবর্তে তিনি অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন এন্ড ডেভেলপমেন্টের (ওইসিডি) পরবর্তী মহাসচিব হওয়ার চেষ্টা করবেন। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।ট্রুডো ও মর্নিউয়ের মধ্যে বিরোধের গুজব বেশ কিছুদিন ধরেই কানাডায় শোনা যাচ্ছে।

বলা হচ্ছিল, তাদের সম্পর্কে ফাটল ধরেছে। কিন্তু গত সপপ্তাহে অর্থমন্ত্রীর ওপর আস্থা প্রকাশ করেন জাস্টিন ট্রুডো।২০১৫ সালে কানাডার ক্ষমতায় আসে ট্রুডোর লিবারেলরা। তখন থেকেই অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন মর্নিউ।

কিন্তু সোমবার রাতে দ্রুততার সঙ্গে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সোমবার সকালে আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করেছি এবং তার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। তিনি এখন দীর্ঘ মেয়াদে এই পদে কাউকে বেছে নেবেন, যেহেতু আমি আর এ পদে থাকছি না।