ফাইনালে নিষিদ্ধ হচ্ছেন নেইমার!

বাংলাদেশমেইল:  প্রথমবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠেছে পিএসজি। লিগ শিরোপা পানসে বানিয়ে ফেলা প্যারিসের দলটি চ্যাম্পিয়নস লিগকে লক্ষ্য ধরেই এগোচ্ছিল। নেইমার-এমবাপ্পের পেছনে অর্থ লগ্নি তারই প্রমাণ। মঙ্গলবার রাতে সেই স্বপ্নের পথে বড় এক লাফ দিয়েছে পিএসজি। আরবি লাইপজিগকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে নিশ্চিত করেছে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল।

কিন্তু কাঙ্খিত এই ফাইনালে খেলা নাও হতে পারে পিএসজির ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারের। কারণ তিনি ম্যাচ শেষে করে ফেলেছেন একটি ভুল। আর ওই ভুলের কারণে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে পারেন নেইমার। নিষিদ্ধ না হলেও উয়েফার দেওয়া সুরক্ষা নীতি অনুযায়ী, পর্তুগালের লিসবনে নেইমারকে হোটেলে আবদ্ধ থাকতে হতে পারে ১২ দিন!

আগস্টে চ্যাম্পিয়নস লিগ শুরু করার আগে কিছু ‘কোভিড-১৯ নিয়ম-নীতির’ কথা জানিয়ে দিয়েছে উয়েফা। তার মধ্যে অন্যতম হলো- অনুমিত ছাড়া বাইরে যাওয়া যাবে না, এক রুমে একজনই থাকবেন। করোনা আক্রান্ত দলের অন্তত ১৩জন সুস্থ থাকলেই ম্যাচ খেলতে পারবে এবং ম্যাচ শেষে জার্সি অদলবদল করা যাবে না।

নেইমার জার্সি অদলবদল করার ভুলটিই করেছেন। আরবি লাইপজিগের ফুটবলার মার্সেল হ্যালসটেনবার্গের সঙ্গে জার্সি অদলবদল করেছেন তিনি। ম্যাচ শেষে তাকে জড়িয়ে ধরে নেইমার তার জার্সি খুলে দেন। পরে হ্যালসটেনও জার্সি উপহার দেন নেইমারকে। কিন্তু উয়েফার দেওয়া করোনা সুরক্ষা নীতি অনুযায়ী, জার্সি বদল করলে তাকে ১২ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এমনকি এক ম্যাচ নিষিদ্ধও হতে পারেন। খবর: ফক্স স্পোর্টস

এখন দেখার বিষয় নেইমারের ভাগ্যে কী অপেক্ষা করছে। ‘অজান্তে’ করে ফেলা ওই ভুলের কারণে নেইমার ফাইনালে খেলতে না পারার সাজা পাবেন। নাকি উয়েফা তার ভুলটা ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবে। আগামী ২৩ আগস্ট বায়ার্ন মিউনিখ ও লিঁওর বিপক্ষে জয়ী দলের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে খেলবে পিএসজি।