আগামী মাসে সিনেমা হল খুলছে ভারত

বাংলাদেশ মেইল::

লকডাউনের পরবর্তী এই সময়ে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে গোটা ভারত। বিভিন্ন অফিস, শপিং মল, দোকানসহ একে একে অনেক কিছু খুললেও সরকারের পক্ষ থেকে এখনও সিনেমা হল খোলার অনুমতি মেলেনি।

তবে এবার হল মালিক ও সিনেমাপ্রেমীদের জন্য এল সুখবর। শোনা যাচ্ছে, আনলকের চতুর্থ পর্বে খুলে যেতে পারে সিঙ্গল স্ক্রিন সিনেমা হলগুলি। কেন্দ্রের তরফে এমনই পরিকল্পনা রয়েছে বলে খবর।

লকডাউনের পর আনলক পর্বে ইতোমধ্যেই জিম, রেস্তোরাঁ, শপিং মল, ধীরে ধীরে সবই খুলেছে। শ্যুটিংয়ের ক্ষেত্রেও মিলেছে ছাড়পত্র। তাই সিনেমা হল কবে খুলবে সে প্রশ্ন উঠছিলই। শোনা যাচ্ছে, আনলকের গাইড লাইন মেনেই অগস্টের শেষে কিংবা সেপ্টেম্বরের শুরুতে সিঙ্গল স্ক্রিন গুলো খোলার অনুমতি দেওয়া হতে পারে।

যদিও সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে বসা, স্যানিটাইজেশন করার নিয়ম মেনেই হল খোলার অনুমতি দেওয়া হবে। পাশাপাশি সিনেমাহলের তাপমাত্র ২৪ ডিগ্রি কিংবা তার বেশি রাখতে হবে।

প্রসঙ্গত, লকডাউনের শুরু থেকেই ভারত ও বাংলাদেশের সিনেমা হলগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। তাই সিনেমা হলের ব্যবসায় বড়সর আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন হল মালিকরা।

এ নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের কাছে মাল্টিপ্লেক্স অ্যাসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে একাধিকবার আবেদনও জানানো হয়েছিল। তবে পরিস্থিতি অনুকুল না থাকায় হল খোলার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

গত মাসে এনিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের বৈঠকও হয়েছে। তবে শেষপর্যন্ত ঠিক কবে সিনেমাহল খোলার অনুমতি মেলে সেটাই দেখার বিষয়।এদিকে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ সিনেমা হল খুলে দেওয়ার আবেদন জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করলেও সরকারের তরফ থেকে এখনও কোনো সাড়া মেলেনি।