নগরীতে অপহরনের শিকার ব্যবসায়ী
রাজনৈতিক নেতার বাড়িতে বৈঠকের পরপরই ছেড়ে দেয়া হলো অপহৃত সাইফুলকে

বাংলাদেশ মেইল ::

নগরীর হালিশহর এলাকার একটি কমিউনিটি সেন্টার থেকে অপহরন হওয়া সাইফুল ইসলামকে জিইসি এলাকায় মোটর সাইকেলে করে এনে ছেড়ে গেছে অপহরনকারীরা । শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে তিনটার দিকে তাকে চোখ বেধে জিইসি মোড়ে রেখে যায় অপহরনকারীরা ।

সাইফুলের ফোন পেয়ে হালিশহর থানায় অপেক্ষারত স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস ছুটে আসে । জান্নাতুল ফেরদৌস জানান , পুলিশ অপহরনকারী নওশাদ মাহমুদ রানার মোবাইল লোকেশান অনুযায়ী সন্ধ্যার পর থেকে অভিযান চালায় । কিন্তু অভিযানে তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয় । অপহৃত সাইফুলকে উদ্ধার করতেও পারেনি পুলিশের অভিযানকারীদল ।

তিনি বলেন , বিকেল সাড়ে চারটার দিকে হালিশহরের বউবাজার এলাকার দুলহান কমিউনিটি সেন্টার থেকে আমার স্বামী সাইফুল ইসলামকে তুলে নিয়ে যায় নওশাদ মাহমুদ রানা ও তার ড্রাইভার ইকবাল । এসময় ১০/১২ জন যুবক ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল ।  তারা একটি সিলভার কালার নুহা গাড়িতে করে সাইফুলকে তুলে নিয়ে যায় । ঘটনার পর আমি হালিশহর থানায় অভিযোগ করি । পুলিশের সহযোগিতার জন্য সন্ধ্যার পর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত আমরা থানায় বসে ছিলাম । কিন্তু অপহরনকারীরা তাকে নিয়ে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় স্থান পরিবর্তন করার কারণে পুলিশের উদ্ধার অভিযান ব্যর্থ হয় । রাত নয়টায় নওশাদের বাড়িতে আবারো অভিযান চালানো হয় ।  কিন্তু পুলিশ পৌছার আগেই নওশাদ সটকে পড়ে ।

নির্ভরযোগ্য একটি সুত্র জানায় , সাইফুলকে বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে তুলে নেবার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে নড়েচড়ে বসে পুলিশ । বাদীর অভিযোগ অনুযায়ী রাত দশটার দিকে চাঁন্দগাও থানাধীন একটি বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ । পুলিশে বাড়িটিতে পৌছার আগেই নওশাদ রানা নগরীর বহদ্দারহাট এলাকায় আওয়ামী লীগের এক নেতার বাসায় অবস্থান নেয় । রাত দেড়টা পর্যন্ত বাড়িটিতে নগর যুবলীগের আহবায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু , যুবলীগ নেতা নওশাদ রানা অবস্থান করে । পরে সেখানে নগর আওয়ামী লীগের এক শীর্ষ নেতার উপস্থিতিতে রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয় । বৈঠকের পর অপহরনকারীরা সাইফুলকে ছেড়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় ।

গভীর রাতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বাড়িটির সামনে পুলিশের দুটি ভ্যান , একটি জিপসহ আরো তিনটি গাড়ি অবস্থান করছে । রাত একটা ৩৮ মিনিটে প্রতিবেদকের সাথে অপহৃত সাইফুলের ভাই এহসানের সাথে মুঠোফোনে আলাপচারিতায় তিনি জানান , অপহৃত ব্যবসায়ী সাইফুলের বাড়ি মিরসরাই উপজেলার ৮ নং ইউনিয়নে । তিনি পরিবারসহ খুলশী এলাকায় বসবাস করছেন । শুক্রবার বিকেলে তাকে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল । পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়েও  অপহৃত ব্যাক্তিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়নি (রাত আড়াইটা পর্যন্ত ) । অপহৃত সাইফুল ও অপহরনকারী রানার মোবাইল ফোন ট্র্যাক করে অভিযান চালিয়ে ব্যর্থ হয় পুলিশ ।

বহদ্দারহাট এলাকায় অপহৃত ব্যাক্তিকে উদ্ধারের বিষয়ে কোন বৈঠক হবার বিষয়ে কোন কিছু জানেন না বলে জানান হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা । তিনি জানান , অভিযান অব্যাহত রয়েছে । কিন্তু বৈঠক শেষ হবার আধ ঘন্টার মধ্যে সাইফুল ইসলামকে মোটর সাইকেলে করে জিইসি মোড়ে নামিয়ে দেয়া হয় ।