জো বাইডেনকে চীনের অভিনন্দন

বাংলাদেশ মেইল ::

অবশেষে মার্কিন নির্বাচনে জয়ী জো বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছে চীন। গত ৩রা নভেম্বরের নির্বাচনের ফলাফল নিশ্চিত হতে অনেকটা সময় লেগে যায়। তবে জয় নিশ্চিত হওয়ার পর ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেনকে অভিনন্দন জানান বিশ্বের বেশিরভাগ দেশের নেতারা। তবে এ বিষয়ে চুপ ছিল চীন। অবশেষে শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তি প্রেসিডেন্টকে তার জয়ের জন্য অভিনন্দন বার্তা পাঠিয়েছে দেশটি। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। ওই বার্তায় বলা হয়েছে, আমরা মার্কিন জনগণের পছন্দকে শ্রুদ্ধা করি। আমরা নির্বাচনে জয়ের জন্য জো বাইডেন ও কমালা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

শুক্রবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র এই বার্তা পাঠান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সময়ে যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্ক একদম তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। শেষ সময়ে বাণিজ্য, গুপ্তচর ও করোনা মহামারি ইস্যুতে দুই দেশের মধ্যেকার সম্পর্ক চরম উত্তপ্ত হয়ে ছিল। ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নির্বাচিত হলে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তাকে সেদিনই অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। তবে এবার সম্পর্কের টানাপড়েনের মধ্যে চীন বাইডেনকে অভিনন্দন জানাবে কিনা তার দিকে চোখ ছিল সবার। তবে বিশ্বের বেশিরভাগ দেশের নেতারাই বাইডেনকে অভিনন্দন জানালেও চুপ ছিল চীন। শুক্রবার সেই নিরবতা ভেঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিনন্দন জানানো হয় বাইডেনকে। যদিও এখনো রাশিয়া বাইডেনকে অভিনন্দন বার্তা পাঠায়নি।

৪ বছর পূর্বে ট্রাম্প যখন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন তখন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সবার আগে ট্রাম্পকে অভিনন্দন বার্তা পাঠিয়েছিলেন। তবে এবার বাইডেনের উদ্দেশ্যে এখনো কোনো টুইট, টেলিগ্রাম কিংবা ফোন কল দেয়া হয়নি। এ নিয়ে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আমরা মনে করি আমাদের এখন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করা প্রয়োজন।

বিবিসি জানিয়েছে, চীনের এই অভিনন্দনের মধ্য দিয়ে এটি স্পষ্ট হয়েছে যে, চীনের প্রেসিডেন্ট ও কমিউনিস্ট পার্টির প্রধান শি জিনপিং যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের ফল আনুষ্ঠানিকভাবে মেনে নিয়েছেন এবং জো বাইডেনকেই প্রতিদ্বন্দ্বী রাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেখছেন।