গণমাধ্যমে ইন্জিনিয়ার মোশারফ নিয়ে নেতিবাচক প্রচারণার প্রতিবাদ

বাংলাদেশ মেইল ::

আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিনের ওপর হামলার ঘটনায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনকে জড়িয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে নেতিবাচক সংবাদ প্রচারে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে মিরসরাই আওয়ামী লীগ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি নিয়ে মিরসরাই প্রেস কাবে আসেন দলটির সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ দাবী করেন, বৃহস্পতিবার নিজামপুর কলেজ এলাকায় সংঘটিত বিচ্ছিন্ন একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশের বেশকিছু গণমাধ্যম ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনকে নিয়ে নেতিবাচক সংবাদ প্রচার করছে। যা ঘটনার সাথে কোন মিল নাই। বরং যে গিয়াস উদ্দিন বিভিন্ন গণমাধ্যমকে মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে তিনি পুরো উত্তর চট্টগ্রামে চিহ্ণিত একজন চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসের মদদদাতা হিসেবে স্বীকৃত।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আওয়ামী লীগ আরো উল্লেখ করেন, আমাদের মনে রাখতে হবে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের সুদীর্ঘ ৫০ বছরের সংগ্রামী রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী। তিনি একজন নেতৃস্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা। যুদ্ধকালীন চট্টগ্রাম-১ নম্বর সেক্টরের সাব সেক্টর কামান্ডার হিসেবে বাঙালীর মহান মুক্তিসংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছেন। যার পুরস্কার স্বরূপ ২০১৯ সালের মার্চ মাসে সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পদ ‘স্বাধীনতা পদকে’ ভূষিত হন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির ও সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে চট্টগ্রাম আওয়ামী রাজনীতির অভিভাবক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে সকল নেতিবাচক প্রচার প্রপাগান্ডা বন্ধের আহবান জানিয়ে বলেন, ‘আমরা বৃহস্পতিবার দিনভর দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে চলা অপপ্রচারের তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি যারা গণমাধ্যমকে মিথ্যা তথ্য ও বক্তব্য দিয়ে বিভ্রান্ত ছড়িয়েছে তাদের বিচার দাবী করছি।’

ওইদিন প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন, মিরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এম সাইফুল্লাহ দিদার, দপ্তার সম্পাদক আলতাফ হোসেন, সদস্য আনোয়ার হোসেন সুজন, মোতাহের চৌধুরী জুয়েল, মিরসরাই উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফাহিমুল হুদা প্রমুখ।