আটা-ময়দা দিয়ে যৌন উত্তেজনার ওষুধ
কালুরঘাটে ভেজাল ওষধের কারখানা

বাংলাদেশ মেইল ::

আটা-ময়দা দিয়ে  রুটি-পাউরুটি বানানো হলেও এখন অভিনব পদ্ধতিতে একই কাঁচামাল  দিয়ে বানানো হচ্ছে জীবন বাঁচানোর যৌন উত্তেজক ওষুধ। ভেজাল এসব ওষধ নামিদামি কোম্পানির নাম ব্যবহার করে উচ্চ দামে বাজারজাত হচ্ছিল । আবার আটা ময়দার উপাদনে ভেজাল ওষুধ তৈরিতে নিয়োগও দেয়া হয়েছিল কেমিস্ট। দামি কোম্পানির মোড়কে ভালোই ওষুধের বাজার ধরেছিল চক্রটি। কিন্তু কথায় বলে চোরের ১০ দিন, গৃহস্থের একদিন। এখনেও তাই হলো। অবশেষে নগর গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে পর্দা খুলল হোসেনের এ ওষুধ ব্যবসায়ের।

বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চান্দগাঁও এলাকার কালুরঘাটের তারানন্দন যুগীশ্রাম কালি মন্দিরের সামনে বেলালের বিল্ডিং এ অভিযানের পর এসব তথ্য বের হয়। বিপুল পরিমাণ ভেজাল ওষুধ ও তৈরির সরঞ্জমাদিসহ মো. হোসেন (৪০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগ। এই অপরাধে জড়িত অপর আসামি মাহমুদুল হক (৪৫) এখনো পলাতক আছেন।

মহানগর গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার আলী হোসেন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত হোসেন যৌন উত্তেজক ওষুধের চাহিদা বেশি থাকায় তারা বিদেশি বিভিন্ন ওষুধের নাম ব্যবহার করে অধিক দামে তাদের পরিচিত ফার্মেসিতে বিক্রয় করে আসছিল। তবে বৈধ কোন কাগজপত্র উপস্থাপন করতে পারেননি। পলাতক আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে চান্দগাঁও থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।