বাগেরহাটে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষককে কারাগারে প্রেরণ

বাংলাদেশ মেইল ::

বাগেরহাটে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার হাফিজুল ইসলাম (২৬) নামের এক যুবককে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। গতকাল মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ধর্ষণের শিকার ওই কলেজ ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। এরপর পুলিশ বাগেরহাট সদর উপজেলার কোন্ডলা গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। ধর্ষক হাফিজুল বাগেরহাট সদর উপজেলার কোন্ডলা গ্রামের জিন্নাত আলী শেখের ছেলে।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজিজুল ইসলাম জানান, হাফিজুল ভিকটিমের ভাইয়ের ঘনিষ্ট বন্ধু। সেই সূত্রে ভিকটিমের বাড়ি যাওয়া আসা ছিল আসামি হাফিজুলের। হাফিজুল গত ১৫ নভেম্বর কলেজ শিক্ষার্থীকে তার বাড়িতে একা পেয়ে জোরপূর্বক শ্লীলতহানী ও নগ্ন ছবি ধারণ করে। এরপর থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে একাধিকবার ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে হাফিজুল।

তিনি আরও জানান, সর্বশেষ ২২ নভেম্বর রাতে ওই শিক্ষার্থীর বাড়িতে গিয়ে নগদ অর্থ দাবি করে এবং অর্থ না দিলে তার ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। পরে ওই শিক্ষার্থীকে তার শয়ন কক্ষে নিয়ে আবারও ধর্ষণ করে হাফিজুল। শিক্ষার্থীর করা মামলায় আমরা অভিযুক্ত হাফিজুল ইসলামকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠালে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেয়। ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীর ডাক্তারি পরীক্ষা বুধবার বাগেরহাট হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। ধর্ষকের ডিএনএ টেস্ট করতে নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।