বিশ্বকাপ ফুটবলে অবিশ্বাস্য ঘটনার নায়কের চিরবিদায়

বাংলাদেশ মেইল ::

এশিয়ায় প্রথম বিশ্বকাপ ফুটবল। জাপান-কোরিয়ায় হওয়া ২০০২ বিশ্বকাপে ফ্রান্স এসেছিল শিরোপা ধরে রাখার মিশনে। অন্যতম ফেভারিটও ছিল তারকাখচিত ফ্রান্স। সেই আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে অবিশ্বাস্যভাবে ফ্রান্স হেরে যায় সেনেগালের কাছে। ওই আসরেই প্রথমবার বিশ্বকাপে খেলার কৃতিত্ব দেখায় আফ্রিকা অঞ্চলের দেশটি। সেনেগালের কাছে ফ্রান্সের ওই হারটিকে মনে করা হয় বিশ্বকাপ ইতিহাসের অন্যতম অঘটন। আর সেনেগাল ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা জয়ের নায়ক ছিলেন পাপা বুবা দিওপ। একমাত্র গোল এসেছিল এই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারের পা থেকেই।

দীর্ঘ সময় রোগে ভোগার পর রোববার না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন সেনেগালের এই কিংবদন্তি ফুটবলার।

দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে সেনেগালের কাছে ওই হারের পর ডেনমার্কের কাছেও হেরে যায় ফ্রান্স। বিদায় ঘণ্টা বাজে জিনেদিন জিদান, থিয়েরি অঁরি, লিলিয়াম থুরাম, প্যাট্রিক ভিয়েরাদের মতো খেলোয়াড়দের নিয়ে গঠিত দলটির। বিশ্বকাপের সেই আসরে কোন গোল করতে পারেনি ফ্রান্স। অন্যদিকে সেনেগাল গড়েছিল ইতিহাস। প্রথমবার খেলতে এসেই নাম লিখিয়েছিল কোয়ার্টার ফাইনালে। গ্রুপ পর্বে উরুগুয়ের সঙ্গে ৩-৩ এ ড্র করা ম্যাচেও জোড়া গোল করেছিলেন পাপা বুবা দিওপ।

সেনেগালের জার্সিতে ৬৩ ম্যাচ খেলা দিওপ ক্যারিয়ারের বেশিরভাগ সময় খেলেছেন ইংল্যান্ডে। খেলেছেন ফরাসি ক্লাব লেঁস এর জার্সিতেও। ইংলিশ ক্লাব ফুলহ্যাম, ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড, পোর্টসমাউথ ও বার্মিংহাম সিটিতে খেলেছেন। ২০০৮ সালে পোর্টমাউথের হয়ে জিতেছেন এফএ কাপ।