সড়ক নিরাপত্তা একটি চ্যালেঞ্জ: কাদের

বাংলাদেশ মেইল ::

সারা দেশে সড়ক নিরাপত্তা একটি চ্যালেঞ্জ বলে উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাজধানীর সঙ্গে পুরো দেশের যোগাযোগ নিরবচ্ছিন্ন রাখা ও সড়ক নিরাপত্তা বিধান একটি চ্যালেঞ্জ।

বুধবার (০২ ডিসেম্বর) ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের দ্বিতীয় নয়ার হাট সেতুর (৪ লেন) নির্মাণ কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি সুবিধাবাদ-জিন্দাবাদে বিশ্বাস করে বলেই দুর্নীতিবাজদের দলে প্রশ্রয় দেয়। রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপির কোনো কৃতজ্ঞতা বোধ নেই।

মানুষ ভয়াবহ দুঃসময় অতিক্রম করছে—বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক পাল্টা প্রশ্ন রেখে বলেন, করোনা, বন্যা, সুপারসাইক্লোন, আম্পানের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগে দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি কী ভূমিকা পালন করেছে, জাতি তা জানতে চায়। বিএনপি জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে গণমাধ্যম আর ফেসবুকে কথামালার বৃষ্টি ঝরিয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মহামারির প্রভাবে গোটা বিশ্ব যখন টালমাটাল তখন জীবন- জীবিকার চাকা সচল রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে দূরদর্শিতা দেখিয়েছেন, তা বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হচ্ছে। অথচ জনগণের এই দুঃসময়ে বিএনপি কোনো ভূমিকা না রেখে শুধু বক্তৃতা-বিবৃতিতেই নিজেদের দায়িত্ব শেষ করেছে। সরকারের কোনো ভালো কাজের প্রশংসা না করে বিএনপি উল্টো অন্ধ সমালোচনা করে যাচ্ছে অবিরাম, তারা আসলে দেশের আরো দুঃসময় এবং জনগণের করুণ অবস্থাই প্রত্যাশা করেছিল।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ভেবেছিল মানুষ না খেয়ে, চিকিৎসা না পেয়ে রাস্তায় মরে থাকবে। সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে এবং মানবিক নেত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে সেই পরিস্থিতি হয়নি বলেই বিএনপি নেতাদের মনে কষ্ট ও জ্বালা ধরেছে।

এই জন্যই তারা সরকারের বিরোধিতা করতে গিয়ে দেশ ও জনগণের বিরোধিতায় নেমেছে, আর জনগণ বিএনপির এসব বুঝতে পেরেছে বলেই তাদের কথায় আর সাড়া দেয় না বলে উল্লেখ করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে বন্দি করে রাখা হয়েছে—মির্জা ফখরুল ইসলামের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, জেনে শুনে ও বুঝে মিথ্যাচার করা তাদের স্বভাব। সরকার খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দেয়নি, সাজাও দেয়নি। মামলা করেছে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর সাজা দিয়েছেন আদালত।