বাকলিয়াতে মাদকের বিরুদ্ধে পোষ্টারিং করায় ছুরিকাহত সেই কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

চট্টগ্রামের বাকলিয়াতে মাদকের বিরুদ্ধে পোস্টারিং করায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আহত সেই আশিকুর রহমান রোহিত (২০) নামের কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত রোহিত বাকলিয়া থানার ডিসি রোডের বাসিন্দা।

আজ শুক্রবার (১৫ জানুয়ারী) সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত রোহিত নগরীর এমইএস কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী বলে জানা গেছে।
বাকলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ নেজাম উদ্দিন জানান, গত ৮ শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়ার দেওয়ান বাজারের কেডিএস গলিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এবং মাদক সংক্রান্ত বিরোধে রোহিতকে ছুরিকাঘাত করা হলে তিনি গুরুত্বর আহত হন। আজ শুক্রবার তার মৃত্যু হয়েছে। এর সঙ্গে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের কোন সম্পর্ক নেই।

ওসি আরও বলেন, এমইএস কলেজের একদশ শ্রেণির ছাত্র রোহিতের ওপর হামলার ঘটনায় তার বড় ভাই জাহিদুর রহমান তিন জনকে আসামি করে মামলা করেছেন। আসামিরা হলেন সাহাবু প্রকাশ কালা সাহাবু (২৬), মো.বাবু (২১) ও মো .মহিউদ্দিন (৩৫)।

রোহিতের বড় ভাই জাহিদুর রহমান জানান, গত ৫ জানুযারি স্থানীয় ক্রীড়া সংগঠন মা মনি ক্লাবের পক্ষ থেকে এলাকায় মাদকবিরোধী পোস্টারিং করে রোহিত। পরে এসব পোস্টার আসামিরা ছিঁড়ে ফেলতে গেলে রোহিত বাধা দেয়। সেদিন তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয় আসামিরা। পরে শুক্রবার বিকেলে পরিকল্পিতভাবে তারা হামলা চালায় রোহিতের ওপর। এসময় রোহিতের পেটে ও পিঠে মারাত্মকভাবে ছুরির আঘাত লাগলে তাকে উদ্ধার করে চমেকে ভর্তি করা হয়। ৮দিন মৃত্যু সাথে পাঞ্জালড়ে আজ সকালে আমার ভাই মারা যায়।

এদিকে সড়ক অবরোধকালে নগর যুবলীগ নেতা সাকিবুর রহমান বলেন, আশিকুর রহমান রোহিতকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। রোহিতের হত্যাকারী মহিউদ্দিন, বাবু এবং সাবু এখনও গ্রেফতার হলোনা কেন? তার হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার চাই।