বিপ্লব বড়ুয়ার সই জাল করে প্রতারণা দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর

বাংলাদেশ মেইল ::

আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার সই জাল করে নিজেদের আওয়ামী লীগের সমর্থিত সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী দাবি করে সংবাদপত্রে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন দুই কাউন্সিলর প্রার্থী। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদকের সই জাল করার প্রতিবাদ জানিয়েছে আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, একটি দৈনিকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নামে দলের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষরে একটি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বিজ্ঞাপন প্রকাশিত হয়।

প্রতিবাদ লিপিতে উল্লেখ করা হয়, সম্পূর্ণ বানোয়াট এ বিজ্ঞাপনের কপিতে আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দুইটি ওয়ার্ড কাউন্সিলর (সংরক্ষিত ওয়ার্ড) পদে দুইজনকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

এ ধরনের তথ্য ও বিজ্ঞাপনের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও বিপ্লব বড়ুয়ার কোনো সম্পর্ক নেই। আওয়ামী লীগের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকাটি চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা।

আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান  বলেন, প্রকাশিত বিজ্ঞাপনটি ভুয়া ও বানোয়াট। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার সই জাল করে বিজ্ঞাপনটি প্রচার করা হয়েছে।

আমরা এর প্রতিবাদ জানিয়েছি।
আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া  বলেন, প্রকাশিত বিজ্ঞাপনে আমার স্বাক্ষর জাল করা হয়েছে। বিজ্ঞাপনটির সঙ্গে আমার বা দলের কোনো সম্পর্ক নেই। তারা প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছেন।

প্রতারণার আশ্রয় নেওয়া দুই কাউন্সিলর প্রার্থী হলেন- ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডের আওতাধীন ৩ নম্বর ইউনিট আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদিকা এবং ২৮, ২৯ ও ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী জিন্নাত আরা বেগম ও ৪২ নম্বর সাংগঠনিক ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী জোহরা বেগম।