নির্বাচনী সহহিংসতায় নিহত বাবুলের পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নগরীর পাঠানটুলিতে ঘটে যাওয়া হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অভিযুক্তদের শাস্তি চেয়েছেন নিহত আজগর আলী বাবুলের পরিবার।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান নিহত বাবুলের ছেলে সেজন মাহমুদ সেতু।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সেজান মাহমুদ সেতু বলেন, হত্যাকাণ্ডের প্রায় দুই সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও তদন্তকারী সংস্থা এ মামলার অতি গুরুত্বপূর্ণ আলামত হিসেবে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র এখনও উদ্ধার করতে পারেনি৷ হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত অনেক আসামিকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আসামিরা বিভিন্ন মাধ্যমে আমাকে এবং আমার পরিবারকে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছে।

সেতু বলেন, বর্তমানে নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় কাদেরের বহিরাগত ভাড়াটে খুনিরা জড়ো হচ্ছে। ইতোমধ্যে পুলিশ ২ জনকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে।

এই মুহূর্তে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে আমার মতো যে কেউ যে কোনো মুহূর্তে এতিম হয়ে যেতে পারে।
হত্যাকাণ্ডে জড়িত সকলের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য আসামিদের গ্রেফতার এবং সব আলামত উদ্ধার করার আবেদন জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আজগর আলীর পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।