বাকলিয়ায় বিএনপি প্রার্থীর কার্যালয়ে হামলা, ২ পুলিশ আহত, আটক ৭

বাংলাদেশ মেইল ::

নগরীর ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়ায় নির্বাচনী বিধিমালা লঙ্ঘনের দায়ে বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী আরিফুল ইসলাম ডিউকের সাত কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় পুলিশের সাথে বিএনপি প্রার্থীর কর্মীদের সংঘর্ষে দুই পুলিশ সদস্য আহত হওয়ায় খবর পাওয়া গেছে। এদিকে বিএনপি প্রার্থীর প্রচারণা কেন্দ্রে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লোকজন হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) রাত ৮টায় দেওয়ান বাজারের ভরা পুকুর পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় দুই পুলিশ সদস্য ছাড়াও বিএনপি প্রার্থীর কর্মী সাইফুল আলম, রিপন, হাবিব, ছোটন, রাজু, কিবরিয়াসহ আরও ১৫ জন আহত হয় বলে জানায় বিএনপির কাউন্সির প্রার্থী আরিফুল ইসলাম ডিউক।

তিনি বলেন, চকবাজার থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন ও ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী শহীদুল আলম শহীদের নেতৃত্বে ৬০ থেকে ৭০ জন সন্ত্রাসী আমার প্রচারণা কার্যালয়ে হামলা চালায়।

বাকলিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রুহুল আমীন বলেন, নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে রাতে প্রচার কাজ চলমান রাখার দায়ে বিএনপি প্রার্থীর ৭ জনকে আটক করে পুলিশ। আটকৃকদের থানায় আনার সময় বিএনপি কর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এসময় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়।

বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী আরিফুল ইসলাম ডিউক বলেন, আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা এ হামলা চালায়।

বিএনপি প্রার্থী আরিফুল ইসলাম ডিউকের অভিযোগ অস্বীকার করে চকবাজার থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন বলেন, বিএনপি তাদের দুর্বলতা ঢাকতে আওয়ামী লীগ ও নৌকার প্রার্থীদের স্রেফ হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এ ধরণের মিথ্যার আ্শ্রয় নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে।