১৮০ দিন পর সুজনের বিদায় ঘন্টা

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

১৮০ দিন টানা কার্যদিবস শেষে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্রশাসকের দায়িত্ব হস্তান্তর করেছেন নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) সুজন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হকের কাছে।

তিনি চসিকের ‘অত্যাবশ্যকীয় ও আর্থিক’ দায়িত্ব পালন করবেন গত ২৭ জানুয়ারির নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. রেজাউল করিম চৌধুরী দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার আগ পর্যন্ত। স্থানীয় সরকার বিভাগ এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

সূত্র জানায়, ১৮০ দিনের জন্য গত ৬ আগস্ট প্রশাসকের দায়িত্ব নিয়েছিলেন সুজন। এর মধ্যে আগস্ট মাসে ২৬ দিন, সেপ্টেম্বর ও নভেম্বর মাসে ৩০ দিন করে ৬০ দিন, অক্টোবর, ডিসেম্বর ও জানুয়ারি মাসে ৩১ দিন করে ৯৩ দিন এবং ফেব্রুয়ারি মাসে একদিন দায়িত্ব পালন করেন।

খোরশেদ আলম সুজন বাংলাদেশ মেইলকে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিশ্বাস করে আমাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন। এর জন্য আমি কৃতজ্ঞ বঙ্গবন্ধু কন্যার প্রতি।

আমি আমার সাধ্যমত, আমার যত যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ছিল সবটুকু দিয়ে চেষ্টা করেছি সেই দায়িত্ব পালনে। আমার চেষ্টা ছিল চট্টগ্রামকে একটা পরিচ্ছন্ন, সুন্দর ও বাসযোগ্য শহর হিসেবে গড়ে তোলার জন্য। ছয় মাসে যা কিছু সাফল্য সব নগরবাসীর, যদি ব্যর্থতা থাকে তা আমার।
তিনি বলেন, দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিক, গণমাধ্যম, পরামর্শক কমিটি ও চসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমর্থন পেয়েছি। এর জন্য ধন্যবাদ জানাই। আমি প্রতিটি কাজ, প্রতিটি মুহূর্তকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিলাম। আমি সবসময় রাজনৈতিক কর্মী। নিজে সড়কে, খালে, নালায় উপস্থিত থেকে কাজ তদারকি করেছি। কর্মীদের মধ্যে প্রাণসঞ্চারের চেষ্টা করেছি।

চসিকের পঞ্চম নির্বাচিত পরিষদের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের মেয়াদ গত ৫ আগস্ট শেষ হওয়ার পর ৬ আগস্ট প্রশাসকের দায়িত্ব নেন সুজন। বৈশ্বিক মহামারী করোনা, বর্ষায় চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতা, পাহাড়ধসের আশঙ্কা থাকায় নির্দিষ্ট সময়ে নির্বাচন না হওয়ায় খোরশেদ আলম সুজনকে চসিকের প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিল সরকার।