সিলেটের রশিদপুরে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৭, গুরুতর আহত ১৮

বাংলাদেশ মেইল ::

সিলেটের রশিদপুরে এনা পরিবহনের সঙ্গে লন্ডন এক্সপ্রেসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন। এদের মধ্যে ১৮ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। তাদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহতরা হলেন-সিলেটের উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক আল মাহমুদ সাদ ইমরান খান (৩৩), এনা পরিবহনের চালক ওসমানীনগর উপজেলার ধরখা গ্রামের মঞ্জুর আলী (৩৮), এনার সুপারভাইজার সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার মিঠাভরা গ্রামের সালমান খান (২৫), হেলপার ধরখা গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেন (২৪), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানার রাজানিয়াকান্দি পশ্চিম পাড়ার নুরুল আমিন (৫০), ঢাকার ওয়ারি এলাকার সাগর আহমদ (২৯) ও সিলেট নগরের আখালিয়া এলাকা শাহ কামাল (২৭)।

নিহত চিকিৎসক ইমরান খানের স্ত্রী শারমিন আক্তার অন্তরা (২৯) গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার্থী।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টায় দক্ষিণ সুরমা থানার রশিদপুর নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম। তিনি জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লন্ডন এক্সপ্রেস (ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-৩১৭৬) ও সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকামুখী এনা পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৭৩১১) দ্রুতগতির দুটি বাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় বাসের সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। এতে বহু যাত্রী হতাহত হয়েছেন।

লন্ডন এক্সপ্রেসের যাত্রীরা  জানান, ঢাকা থেকে আসার পথে বারবার বাসের চালক ওভারটেক করছিলেন।