চিম্বুক পাহাড়ে বন্য ভালুকের আক্রমনে আহতদের হেলিকপ্টারে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ

রতন কুমার দে(শাওন)বান্দরবান  প্রতিনিধিঃ

বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড়ে বন্য ভালুকের আক্রমণে মারাত্মকভাবে আহত দুজন ম্রোকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়েছে। দুপুরে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার করে তাদের চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

জানা যায়, শুক্রবার সকাল ৯ টায় বান্দরবান সদর উপজেলাধীন চিম্বুক পাহাড়ের স্থানীয় ম্রো ইয়াং ওয়াই ম্রো (৪২), কারবারী চিম্বুকপাড়া, পিতাঃ মৃতঃ পাতুই ম্রো এবং মাংলিউ ম্রো (০৫), পিতাঃ রিং রাও ম্রো চিম্বুক পাহাড়ে জুম চাষ করার জন্য সকালে পাহাড়ে যায়। পাহাড়ে জুম চাষ করা অবস্থায় তাদের উপর বন্য ভাল্লুক হঠাৎ আত্রুমন করলে উভয়ই গুরুতর আহত হয়। মুমূর্ষু অবস্থায় স্থানীয় জনগণ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়।

বান্দরবান সেনা রিজিয়নের (৬৯ ব্রিগেডের) সহযোগিতায় ৭ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স কর্তৃক তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়। আহতদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় রিজিয়ন কমান্ডার, বান্দরবানের সার্বিক নির্দেশনায় মুমূর্ষু ম্রোদের উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারযোগে আজ দুপুর ২ টায় চট্রগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ম্রো জনগোষ্ঠীর তথা পার্বত্য চট্রগ্রামে বসবাসরত সকল ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠীর যেকোন আপদকালীন সময়ে তাদের পাশে থেকে সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করে আসছে সেনাবাহিনী ।
বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্মকর্তারা জানান, ভবিষ্যতেও ম্রো জনগোষ্ঠী তথা পার্বত্য এলাকার ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠীর পাশে থেকে তাদের জীবন মান উন্নয়ন এবং তাদের যে কোন প্রয়োজনে সর্বদা নিরলসভাবে কাজ করে যাবে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।