কক্সবাজারে পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা ছিনতাই, আটক ৩ পুলিশ রিমান্ডে

বাংলাদেশ মেইল ::

কক্সবাজারে বসতবাড়িতে ঢুকে এক নারীকে পিস্তল ঠেকিয়ে তিন লাখ টাকা ছিনিয়ে নেবার অভিযোগে আটক তিন পুলিশ সদস্যকে দুই দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত। আটক তিনজনকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার বিকালে আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সোমবার বিকালে শহরের মধ্যম কুতুবদিয়াপাড়ার বাসিন্দা ব্যবসায়ী রিয়াজ আহমদের স্ত্রী রোজিনা খাতুন সাদা পোষাকের তিন পুলিশ সদস্যের ছিনতাইয়ের শিকার হন। স্থানীয়রা এক পুলিশ সদস্যকে হাতেনাতে ধরে কক্সবাজার সদর থানা পুলিশকে সোপর্দ করে। পরে গ্রেফতার হয় আরও দুজন। গ্রেফতার হওয়া তিন পুলিশ সদস্য হলেন এসআই নুর হুদা ছিদ্দিকী, কনস্টেবল আমিনুল মমিন ও মামুন মোল্লা। আদালতের মাধ্যমে তাদের দুদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। তিনজনই কক্সবাজার সদর মডেল থানায় কর্মরত। এই তিনজন ছাড়া অজ্ঞাত আরও দুজনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি অপারেশন মোহাম্মদ সেলিম জানান, বাদীর এজাহার মতে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। এসআই নুর হুদা ছিদ্দিকী, কনস্টেবল আমিনুল মমিন ও মামুন মোল্লাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি তিনজনকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার বিকালে আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জানা যায়, পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম কুতুবদিয়াপাড়ার রিয়াজ আহমদের স্ত্রী রোজিনা খাতুন গ্যাসের দোকান করার জন্য

আত্মীয়দের কাছ থেকে তিন লাখ টাকা সংগ্রহ করে সোমবার বিকালে বাড়ি ফেরেন। এর কিছুক্ষণ পরই অটোরিকশায় পাঁচজন সাদা পোশাক পরা লোক তার বসতবাড়িতে প্রবেশ করেন। তারা রোজিনাকে ইয়াবা ব্যবসায়ী আখ্যা দিয়ে টাকা দাবি করেন। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে রোজিনার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে মারধর করা হয়। একপর্যায়ে রোজিনা তার কাছে থাকা তিন লাখ টাকা তাদের তুলে দেন। এ সময় রোজিনার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসেন। তারা অটোরিকশা থেকে একজনকে ধরে ফেলেন। পরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করা হয়।