কোম্পানীগন্জের বসুরহাটে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত ২৫

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ফের সংঘর্ষের ঘটনায় একজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বসুরহাট পৌরসভার মেয়র, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোটভাই আবদুল কাদের মির্জা এবং আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের এই সংঘর্ষ ঘটে৷ নিহত যুবকের নাম আলাউদ্দিন।

মঙ্গলবার (৯ মার্চ) রাত ১০টার দিকে বসুরহাট পৌরসভা কার্যালয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনি ও তিন পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন।

এসময় সংঘর্ষকারীরা পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। কয়েকটি গাড়ি ও দোকানে ভাঙচুরও চালানো হয়।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল জানান, নিহত আলাউদ্দিন তার  কর্মি। সে তার পাশের বাড়ির ছেলে। তিনি এ হত্যার জন্য কাদের মির্জাকে দায়ী করেন ।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনি জানান, পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে আহত হন তিনিসহ আরও চার পুলিশ সদস্য। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ২২ জন আহত হয়েছে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আলাউদ্দিন নামে একজন মারা যান। তার বিস্তারিত পরিচয় এখনও জানা যায়নি।