নগরীর সড়কে দুর্ভোগ কমাতে চসিক-সিডিএ বৈঠক

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

 

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলছেন, প্যাচওয়াকের মাধ্যমে পাল্টে ফেলা হবে এই চিত্র। কিন্তু সড়কে সিটি করপোরেশন কাজ করে যাওয়ার কিছু দিনের মধ্যেই ভালো সড়ক কেটে ফের অচল করে দেয় ওয়াসা ও সিডিএ— নগরবাসীর এই অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

দুর্ভোগ কমিয়ে নাগরিক জীবনে স্বস্তি ফেরাতে এবার আলোচনয় বসেছেন চসিক মেয়র এম রেজাউল করিম ও সিডিএ চেয়ারম্যান এম. জহিরুল আলম দোভাষ। রবিবার (১৪ মার্চ) টাইগার পাসস্থ চসিকের কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এসময় সংস্থা দু’টির মধ্যে সমন্বয়ে গুরুত্ব দিয়েছেন দুই পক্ষই। সিডিএ চেয়ারম্যান প্রস্তাব দিয়েছেন সেবা সংস্থা দু’টির প্রকৌলশীদের একটি সমন্বয় কমিটি গঠনের।

আলোচনায় সভয় মেয়র রেজাউল বলেন, ‘নগরের উন্নয়নে সিটি করপোরেশন ও সিডিএ একে অপরের পরিপূরক। নগরে যেসব উন্নয়ন প্রকল্প চালাচ্ছে সিডিএ তা বাস্তবায়ন হলে নগরের চেহারা পাল্টে যাবে।

কিন্তু সমন্বয়ের অভাবে বর্ষায় দুর্ভোগ বেড়ে যাওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করে মেয়র বলেন, ‘দুর্ভোগ কমাতে সিটি করপোরেশন জরুরি ভিত্তিতে নালা-খাল পরিষ্কারের কাজ শুরু করেছে। অন্যদিকে সিডিএকেও একই কাজ করতে হচ্ছে। এতে অর্থ অপচয়ের পাশাপাশি ওভার লেপিং হচ্ছে। এক্ষেত্রে চসিক-সিডিএ সমন্বয় জরুরি।

একইভাবে সেবা সংস্থা দু’টির মধ্যে সম্বনয়ের জোর দিয়েছেন সিডিএ চেয়ারম্যান দোভাষ। চলমান প্রকল্পগুলোতে রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবীদের সম্পৃক্ততার গুরুত্ব আরোপ করে তিনি বলেন, ‘উভয় প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলীদের একটি সমন্বয় কমিটি করা হলে চলমান বিভিন্ন সমস্যার দ্রুত সমাধান আসতে পারে।

তিনি আরও বলেন, ‘নগরের ৩৬টি খাল পুনরুদ্ধারে সিডিএ কাজ করছে।এর মধ্যে ২২টি পয়েন্ট চিহ্নিত করে প্রকল্প কাজ চলমান আছে। আগামী জুন মাসের আগে নগরীর খালগুলোতে প্রতিবন্ধকতা দূর করবে সিডিএ।’

সভায় অন্যান্যর মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোজ্জামেল হক, চসিক প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্ণেল সোহেল আহম্মেদ, চসিকের ভারপ্রাপ্ত সচিবওও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ইসলাম প্রমুখ।