কক্সবাজারে ভূমি অধিগ্রহণে দূর্নীতি
ভুমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা বিজয় কুমারকে গ্রেফতার করেছে দুদক

বাংলাদেশ মেইল ::

কক্সবাজার এলএ শাখার অতিরিক্ত ভুমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা বিজয় কুমার সিং কে(বর্তমানে খাগড়াছড়িতে কর্মরত)  আটক করেছে দুদক। সোমবার (১৫ মার্চ)  চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

সোমবার বিকেলে তাকে চীফ মেট্রাপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হয়।

গ্রেফতার হওয়া বিজয় কুমার সিংহ অতিরিক্ত ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা হিসেবে বর্তমানে  খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় কর্মরত। সে গাইবান্ধা জেলার নারায়ণপুরের মৃত অনিল কুমার সিংহ ও মৃত গীতা রানী সিংহের ছেলে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের উপসহকারী পরিচালক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা মো: শরীফ উদ্দিন জানান ২০২০ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারী র‌্যাব কক্সবাজার কমান্ডিং অফিস কর্তৃক কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রহণ শাখার বিভিন্ন প্রকল্পের চলমান ক্ষতিপূরণ প্রদানের মাঝখান থেকে যে ঘুষ বা অবৈধ লেনদেন হতো সেই অবৈধ লেনদেনের টাকা সহ র‌্যাব কক্সবাজার ভূমি অধিগ্রহণ অফিসের ওয়াসিম উদ্দিন নামে একজন সার্ভেয়ারকে ৯৩ লক্ষ ৬৬ হাজার টাকাসহ গ্রেফতার করেন। উক্ত টাকা উদ্ধারের পর দুদকের পক্ষ থেকে ৩ জন সার্ভেয়ারকে সুনিদিষ্ট আসামী করে অজ্ঞাত নামা আরো ৬/৭ জন আসামী করে আমি বাদী হয়ে সুত্রোক্ত মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়ের করার পর তদন্তের শুরুতে ভূমি অধিগ্রহণ শাখার অবৈধ লেনদেনের সাথে জড়িত এই রকম তিনজন দালালকে গত বছরের ২২ জুলাই গ্রেফতার করা হয়  । উক্ত তিনজন দালাল সহ ইতিপূর্বে গ্রেফতারকৃত আসামী সার্ভেয়ার ওয়াসিম উদ্দিনকে ৭ দিন এর রিমান্ডে বিভিন্ন রেকর্ড/তথ্য পাওয়া যায়।   উক্ত তিন জন দালালসহ সার্ভেয়ার ওয়াসীমসহ চার  জনই ফৌ. কা. ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করেন। তাদের দেয়া তথ্যানুযায়ী বিজয় কুমার সিংহকে গ্রেফতার করা হয়েছে।